ইডির দফতরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তৃণমূল সাংসদ সৃঞ্জয় বসুকে ইডির দফতরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তৃণমূল সাংসদ সৃঞ্জয় বসুকে

বিধানগরে ইডির দফতরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সৃঞ্জয় বসুকে।  সারদা তদন্তে তাঁকে ডেকে পাঠায় এমফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। মূলত সারদার সঙ্গে  ব্যবসায়িক চুক্তি নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে সৃঞ্জয় বসুকে। পাশাপাশি দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালের কর্তা প্রদীপ ট্যান্ডনকেও আজ ডেকে পাঠিয়েছে ইডি।

বিশ্বভারতীর নিগৃহীতা ছাত্রীর চিকিত্‍সার জন্য এক লক্ষ টাকা দিচ্ছে সরকার বিশ্বভারতীর নিগৃহীতা ছাত্রীর চিকিত্‍সার জন্য এক লক্ষ টাকা দিচ্ছে সরকার

বিশ্বভারতী ছেড়ে যাওয়া নিগৃহীতা ছাত্রীর চিকিত্‍সার জন্য এক লক্ষ টাকা দেবে রাজ্য সরকার।  নিগৃহীতা কলাভবনের ছাত্রী ছিলেন। নিগ্রহের অভিযোগ ওঠে তিন ছাত্রের বিরুদ্ধে। বিশ্বভারতী প্রথম দিকে পদক্ষেপ না নিলেও, খবর জানাজানি হতে নড়েচড়ে বসে প্রশাসন।

হাওড়ার দাসনগরে চলন্ত বাসে মহিলার শ্লীলতাহানি হাওড়ার দাসনগরে চলন্ত বাসে মহিলার শ্লীলতাহানি

হাওড়ার দাসনগরে ফের মহিলাকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। অভিযোগ, গতকাল রাত নটা নাগাদ দাসনগরে চলন্ত বাসেই প্রথমে মহিলাকে উদ্দেশ্য করে কটূক্তি করে দুই যুবক। প্রতিবাদ করলে মহিলার শ্লীলতাহানি করা হয় বলে অভিযোগ। মহিলার চিত্কারে তত্পর হন বাসের যাত্রীরা। মেহেতাব আলম এবং ইমরান খাঁ নামে দুই যুবককে ধরে ফেলেন তাঁরা। এরপর দাসনগর থানার সামনে বাস থামিয়ে পুলিসের হাতে অভিযুক্ত দুজনকে তুলে দেন যাত্রীরা।  

অধ্যক্ষের বাড়িতে হামলার অভিযোগে সাসপেন্ড টিএমসিপি নেতা

জলপাইগুড়ির আনন্দচন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষের বাড়িতে হামলার অভিযোগে সাসপেন্ড  করা হল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের এক নেতাকে।  সাংবাদিক সম্মেলন করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি শঙ্কুদেবপাণ্ডা এই সাসপেন্ডের কথা ঘোষণা করেন। ছাত্র ভর্তিকে কেন্দ্র করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুইটি গোষ্ঠী দীর্ঘদিন ধরে জলপাইগুড়ির আনন্দচন্দ্র কলেজে আন্দোলন করছিল।

এমপিএসের আমানতকারীদের অভিনব প্রতিবাদ এমপিএসের আমানতকারীদের অভিনব প্রতিবাদ

এজেন্টদের বাড়ি গিয়ে দুর্গোতসব পালন করার সিদ্ধান্ত নিলেন দুর্গাপুরে এমপিএসের আমানতকারীরা। এমপিএসে লক্ষ লক্ষ টাকা জমা রেখেছিলেন তাঁরা। সেই টাকা ফেরত পাননি এখনও। পুজোর মুখে তাঁদের এই অসহায় অবস্থার জন্য এজেন্টদেরই মূলত দায়ী করছেন আমানতকারীরা। জমানো টাকা সময় মত ফেরত না পেলে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এজেন্টদের বাড়ি ঘেরাও করা হবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। প্রয়োজনে আদালতের দ্বারস্থ হওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমানতকারীরা।