আলস্য-আশ্রমে ঘোরাফেরা

আলস্য-আশ্রমে ঘোরাফেরা

তা গত ২০/২২ বছর তো হবেই। আমি নিয়মিত লক্ষ্য করে চলেছি উত্‍পলকুমার বসুকে। উত্‍পলকুমার বসুর লেখালেখিকে। আমাদের চারপাশে, আমাদের চারিপাশে পড়ার মতো বাংলা সাহিত্য প্রতিদিন কতই না রচিত হয়ে চলেছে। কিন্তু লক্ষ্য করার মতো? ওই যে উত্‍পলকুমার চারদিক দেখেতে দেখেতে খাটো পায়জামা-ফতুয়ায় হেঁটে আসছেন (যেন জরিপবাবু), ওই যে উত্‍পলকুমার জেটপাখি দেখছেন (পাখি দেখছেন কি! নাকি ওড়া দেখছেন! রানওয়ে!), ওই যে উত্পলকুমার কফিহাউসে টেবিল জমিয়েছেন। ওই যে উত্পলকুমার টেলিভিশনে ফিচার লিখছেন (লোকমাতা দেবী)। ওই যে উত্‍পলকুমার হুস্, উড়ে গেলেন গ্রিসে। ওই ওই যে উত্‍পলকুমার নবদ্বীপে কীর্তন শুনছেন। ...এই রকম কত কত উত্‍পলকুমারকে যে আমি গত ২০/২২ বছর যাবত্‍ লক্ষ্য করে আসছি তা আমি নিজেই জানি না।

সবিনয়ে জানাই যেদিন থেকে আমি সামান্য লেখালেখির চেষ্টা করে আসছি, আমি হারিয়ে ফেলেছি আমার পাঠকৌমার্য। আরও লক্ষ্যণীয় এই যে আমি ধীরে ধীরে হয়ে উঠেছি একজন আত্মসর্বস্ব নিরীক্ষক মাত্র। যার নিরীক্ষণ বিলুপ্তপ্রিয় আমিষাশী ও বিচরণশীল। জটিল ও কুয়াশাবৃত ভূমিশয্যাই যার আরাধ্য, সৌরবৃক্ষ মুখে ছুটে চলা বরাহে নিহিত যার অভিপ্রায় এবং যার চোখের সামনে ভাসমান লেখার টেবিল ও দেখার টেবিল।

এই সমস্ত মনোসংযোগঘটিত ক্ষয়-ক্ষতি নিয়েই আমি ঢুকে পড়েছিলাম ভাষামহলে সূর্যস্বয়ম্বরা, জ্বলে এবং জ্বালায়। লক্ষ্য করলাম কাহিনি নয়, এমনকি কোনওরকম কাহিনিসূত্রও নয়, বরং উত্‍পলকুমার নির্মাণ করতে চাইছেন একের পর এক ফ্যালাসির, উত্‍পলকুমার ধ্বংস করতে চাইছেন একের পর এক ফ্যালাসির। আধা ঔপনিবেশিক এই ফ্যালাসি। যে ফ্যালাসি থেকে জন্ম এক দ্বন্দ্বের, শূন্যতার দ্বন্দ্বের, কবিতাদুনিয়ার এক সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের। আর জন্ম পাঠকের। কবিতাপাঠকের। এক দগ্ধ উপনিবেশে পাখির ডাক যেভাবে তৈরি করে মায়াসভ্যতার রহস্য, উত্‍পলকুমারও প্রায় অর্থহীন জীবনের শ্রম ও সংকট থেকে ওই একই প্রকারে নির্মাণ করে চলেছেন একটিই মায়াকাননের ফুল। আর পুষ্পজন্ম কখনোই কাহিনি নির্ভর নয়। বরং বলা যায় অনেকাংশেই অবৈধ মনসংযোগ সর্বস্ব এবং এই মনসংযোগের প্রান্তরেখা কখনও বা ছুঁয়ে যায় জাগতিক ঘটনাপ্রবাহের জাদুবাস্তবতা, আবার কখনও বা এই বাস্তবতা ছুঁয়ে যায় প্রান্তরেখাটিকে। ওই প্রান্তরেখায় নিহিত যে রিরংসাভঙ্গিমা, যে যে অশান্তি চুক্তিপত্র, যে যে সমান্তরাল (প্রান্তিক) রাজনীতির বাণিজ্যদলিল, কী আশ্চর্য, তার প্রায় সমস্ত স্বরূপই আমি প্রত্যক্ষে পেলাম উত্‍পলকুমারের কবিতায়, আমি অস্থিরে গেলাম।

মাটির স্বচ্ছতা কাঁপে-উত্‍পলকুমার একদা দেখেছিলেন, দেখেছিলেন এবং লিখেছিলেন। মধ্যে মধ্যে মনে হয় এই আপাত সহজ পংক্তিটিতে নিহিত রয়েছে উত্পলকুমারের যাবতীয় রাজনৈতিক রণনীতি এবং এই কম্পাঙ্ক যেন তার রচনায় খানিকটা নিয়তি নির্ধারিত। কেন না তাঁর ভাষা ব্যবহারে হেরে যাওয়া, বারবার হেরে যাওয়া লড়াকু, অন্ত্যজ এবং প্রান্তিক মানুষের ছায়া ক্রীড়া করে। তার ভাষা ব্যবহারে ক্রীড়া করে এক মজামার বালকের হাসি; যার ডাক নাম কৌতুক। উত্পলকুমারের লেখায় এই যে আশা ও আশাহতের যুগপত্‍ আলো অন্ধকার- তা যাবতীয় একাডেমিক ডিসকোর্সের বাইরে নির্মাণ করে চলেছে এক আণবিক উপনিবেশের। উত্পলকুমার যাকে আলস্য-আশ্রম নামে চিহ্নিত করতে বোধহয় নিশ্চিন্তবোধ করবেন। যেখানে গান-বাজনা, ধর্মাচরণ, দশবছর আগের কোনো লেখা নিয়ে আলোচনা ইত্যাদি সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। যেখানে গেলে আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়বে, মুখের ব্রণ মিলিয়ে যাবে, এবং বহুদিন আগে হারিয়ে যাওয়া এরিয়ার চেক, উচ্চ-মাধ্যমিকের মার্কশিট এবং উত্পলকুমার বসুর বাড়ির ঠিকানা লেখা কাগজটিও খুঁজে পাওয়া যাবে।

এই আলস্য-আশ্রমে ঘুরে বেড়াতে বড় সাধ জাগে। দেখি, দূরে উত্পলকুমার বসে আছেন। বসে আছেন বটের নিচে। সাহায্য বটের নিচে। উত্পলকুমার হাসছেন। ওমা! বটের গায়ে পেরেকসাঁটা একটা পোস্টার-

অবেলায় ঘুম পায়, জেগে উঠি, তাও অসময়ে।
দেখি বিকেল গড়িয়ে গেছে, সন্ধ্যার ঢালের উপর
দাঁড়িয়ে দু-জন মেয়ে প্রাকৃত ভাষায় কথা কইছে, আমি হাসছি।

রাহুল পুরকায়স্থ
Your Comments

asadharon....... mon chhnuye jay.........

  Post CommentsX  

@ তানিয়া বা সুদন - you people are criticizing this news channel exactly the same way i did & many other starting to.keep it up against these corrupted fake news channels,as u perfectly mentioned - ``a dalal of cpim``.

  Post CommentsX  

house loot and set fire in presence of police at umedpur village , under nodakhali police station , south 24 parganas district , west bengal on 20th january , 2012 . this is a case of conspiracy and police negligence. police could have prevented the loot and torched the house of widow ansura bibi. the inspector in charge and others were present at the crime spot, but the police officers stood``mute spectators`` kindly order for probe the basic facts of the incident and the police inaction , negligence and know what action had been taken to arrest the fir named accused of nodakhali police station case no.42 dated 08/02/2012. widow ansura bibi and her family members are seriously affected by the violation of their fundamental rights in presence of police concerning women , children and their properties . fir named accused are freely moving with police since 20th january 2012 and threatening victims family and their witnesses. with kind regards sheikh sultan mobile-9831617718

  Post CommentsX  

তানিয়া বা সুদন কোন মিথ্যা খবর পরিবেশন করা আমার উদ্দেশ্য নয় । আমি সিপিএম-দলের কোন কর্মী বা সদস্য নই । পেশাগত কারণে জঙ্গলমহলের বিস্তীর্ণ এলাকা ঘোরা আমার কাজ । আপনারা সেই দৃশ্যগুলো কল্পনাও করতে বা অনুভব করতে পারবেন না,যা আমি বা আমার মতো অন্যরা অনুভব করেছেন । সিপিএম- এর অনেক নোংরামি ছিল,আছে কোন সন্দেহ নেই কিন্তু আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা, অনুভূতি কে অস্বীকার করতে পারিনা । আপনারা একটু বিচার করে দেখবেন । ২৪ ঘন্টা বামপন্হী ঘেষা চ্যানেল হলেও এদের বিশ্লেষষন অনেক সুসংহত ও যুক্তিনির্ভর । অন্য চ্যানেল বা কোন ব্যক্তিবিশেষের প্রতি কটুক্তি করেন না । বিভিন্ন পক্ষকে সম্মান দেন । অঞ্জন দা বা সুদীপ্ত দার দুর্দান্ত উপস্হাপনা সবাইকে মুগ্ধ করে । এখন কুনাল ঘোষের মত ``যিনিই প্রশ্নকর্তা,তিনিই বিশ্লেষক আবার তিনিই সিদ্ধান্তগ্রহণকারী এমন বহুমুখী প্রতিভা কোথায় পাওয়া যাবে বলুন । নমস্কার নেবেন ।

  Post CommentsX  

তানিয়া বা সুদন কোন মিথ্যা খবর পরিবেশন করা আমার উদ্দেশ্য নয় । আমি সিপিএম-দলের কোন কর্মী বা সদস্য নই । পেশাগত কারণে জঙ্গলমহলের বিস্তীর্ণ এলাকা ঘোরা আমার কাজ । আপনারা সেই দৃশ্যগুলো কল্পনাও করতে বা অনুভব করতে পারবেন না,যা আমি বা আমার মতো অন্যরা অনুভব করেছেন । সিপিএম- এর অনেক নোংরামি ছিল,আছে কোন সন্দেহ নেই কিন্তু আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা, অনুভূতি কে অস্বীকার করতে পারিনা । আপনারা একটু বিচার করে দেখবেন । ২৪ ঘন্টা বামপন্হী ঘেষা চ্যানেল হলেও এদের বিশ্লেষষন অনেক সুসংহত ও যুক্তিনির্ভর । অন্য চ্যানেল বা কোন ব্যক্তিবিশেষের প্রতি কটুক্তি করেন না । বিভিন্ন পক্ষকে সম্মান দেন । অঞ্জন দা বা সুদীপ্ত দার দুর্দান্ত উপস্হাপনা সবাইকে মুগ্ধ করে । এখন কুনাল ঘোষের মত ``যিনিই প্রশ্নকর্তা,তিনিই বিশ্লেষক আবার তিনিই সিদ্ধান্তগ্রহণকারী এমন বহুমুখী প্রতিভা কোথায় পাওয়া যাবে বলুন । নমস্কার নেবেন ।

  Post CommentsX  

@sudan, yes, i think left ideology is better, if not best.. i don`t know yr age... sain bari..hatya kanda.. as reported by your chanel is not true or correct/total reporting of the fact... be logical.. 24 ghanta- ke apnar bhalo ba mando balar kichu nai.. era professional... you can criticize them `how far they professional.. to the news` the term dalal show your class.. best..

  Post CommentsX  

@tania, kasto kore 24 ghanta dekhben na... kolkata tv, starananda dekhun r barir lokjonder ektu parashuno korte balun.. amra sabai.. apnio.. asun ektu khola mone bhabna chinta kori...lol.. tate desher karo mangal na holeo amader hobey.... ...best wishes..

  Post CommentsX  

do you think that cpim are very honest, calm and cool. if you are true reporter show the case of ``sain bari hatyakando``where the leader was nirupam sen. i know you do not show the true story, because you are a dalal of cpim.

  Post CommentsX  

keno eto mithya khabor balen. apnader lajja kare na. apnader gharer chele meyara apnader mithya khabor dekhe lajja pabe. chi. chi.......

  Post CommentsX  

বিভিন্ন সরকারি,আধাসরকারি ও অন্যান্য ক্ষেএে সরকারি দলের ভৈরববাহিনী মানুষকে ২৮শে কাজে যোগ দেওয়ার জন্য জোর করছে, সার্ভিস ব্রেক ও অন্যান্য হুমকি তো আছেই । আমরা ভুলিনি এই দল সিঙ্গুরে দিনের পর দিন অবরোধ করে প্রচুর অর্থের অপচয় করিয়েছিল । বিভিন্ন স্হানে রাস্তা কেটে অচল করে রেখেছিল । জঙ্গলমহলে মাসের পর মাস সর্বনাশা আন্দোলনে সমস্ত দিক ছারখার হয়ে গেছিল,তাতে সক্রিয় সাহায্য করেছিল তৃণমূল ও তাদের পোষিত বুদ্ধিজীবিরা । ছএধররা আজো জেলে কেন ? সাপ পুষলে ছোবল খাওয়ার কথাটা মনে রেখেছেন তাহলে । আজ যেখানে সারা দেশের কোথাও ধর্মঘটের বিরুদ্ধে সরকারি ফতোয়া জারি হয়নি সেখানে ``জনদরদী`` ও ``কৃষকদরদী`` সরকার ব্রিগেডে উলটপূরাণ দেখে আশঙ্কিত হয়ে মানুষের আন্দোলন করার অধিকার হণণ করছে । মানুষকে বন্ধের বিরোধ স্বতঃস্ফুরত ভাবে করতে দিন, নাকি মানুষের প্রতি বিশ্বাস টা চলে গেছে ?

  Post CommentsX  

amra r o chai.......................

  Post CommentsX  

যেভাবে গণতান্এিক অধিকারের ওপর হস্তক্ষেপ করা শুরু করেছে এই সরকার তাতে বাংলার খেটে খাওয়া প্রান্তিক মানুষেরা ভাবতে শুরু করেছেন যে তারা চাটু থেকে উনুনে গিয়ে পড়েছেন । যে মমতা ব্যানার্জী দিনের পর দিন highway আটকে রেখেছিলেন । পথ অবরোধ করে প্রচুর অসুবিধার সৃষ্টি করেছিলেন ,তিনি প্রত্যেক টি আন্দোলনের কন্ঠরোধ করতে চাইছেন । চাকরি তে সংকটের ভয়ে যারা পরিবহন দপ্তরে বা অন্যান্য দপ্তরে ২৮ তারিখ হাজির হবেন, তার গনতান্এিক আন্দোলন -এর অধিকার হারানোর রাগ টা বুমেরাং হবে নাতো ?

  Post CommentsX  

workers in india have an incredibly militant history, and the current moment is hardly different. now india’s trade union leaders are planning a massive strike on february 28. will the strike present further opportunities for collaboration between revolutionary forces in the cities and rural scheduled castes and tribal peoples? will the strike be effective in exposing the rotten foundations of india’s “shining democracy” to the world?

  Post CommentsX  

rahul babu, eto gaddya noy, e je kabita.... marome pashilo....thanks.. amader trishna mitie - aro likhun...

  Post CommentsX  

khub bhalo rahulda

  Post CommentsX  

হে পাঠক লক্ষ্য করুন এইসব কারুকৃত ভাষা ব্যবহার। ধন্যবাদ রাহুলদা।

  Post CommentsX  

হে পাঠক লক্ষ্য রাখুন এইসব ভাষা ব্যবহার। অসাধারণ রাহুলদা।

  Post CommentsX  

govt doctorder modhe sobcheye baje poristhitite achen block medical officer of health ra.sorkar tadr diye sob kaj(pin to elephent) koray atacha barti maine ba samman ba sujog dei na.sei jonnei swastha prosasak-chgikitsak(bmoh in wbphas cader) pawa jacche na.apnara plz eta niye tadantamulak anusthan karun.

  Post CommentsX  
Post Comments