নেতা খুনের প্রতিবাদে আজ আসানসোলে ১২ ঘণ্টা বন্ধ বামেদের

আসানসোল বন্‌ধে ব্যাপক সাড়া

আসানসোল বন্‌ধে ব্যাপক সাড়াবারাবনির প্রাক্তন সিপিআইএম বিধায়ক দিলীপ সরকারের খুনের প্রতিবাদে আসানসোলে বামেদের ডাকা বনধ নির্বিঘ্নেই কাটল। আসানসোল শহরের অধিকাংশ দোকান, বাজার বন্ধইউ থাকল। রাস্তাঘাটও ফাঁকা। দূরপাল্লার বাসসহ আসানসোল মহকুমায় বাস চলছে না। তবে সামাজিক অনুষ্ঠান ও পরীক্ষাকে বনধের আওতার বাইরে রাখা হয়েছে। আসানসোলের বিভিন্ন এলাকায় বনধের সমর্থনে মিছিল করছে বামেরা। পাল্টা বনধ বিরোধী মিছিল করে তৃণমূল কংগ্রেস।


রবিবার প্রকাশ্যে রাস্তায় গুলি করে খুন করা হয় বারাবনির প্রাক্তন সিপিআইএম বিধায়ক দিলীপ সরকারকে। প্রাতঃভ্রমণের সময় খুব কাছ থেকে গুলি করে আততায়ীরা। মোটরবাইকে চেপে আসা দুই আততায়ীর মধ্যে একজন মহিলা। দাবি প্রত্যক্ষদর্শীদের। জখম অবস্থায় বার্ণপুর ইস্কো হাসপাতালে নিয়ে গেলে দিলীপ সরকারকে  মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিস। প্রতিবাদে জেলা জুড়ে বিক্ষোভের পাশাপাশি আজ আসানসোল মহকুমায় বারো ঘন্টার বনধ ডাক দিয়েছে বামফ্রন্ট।

অন্যদিকে, গুলিতে নিহত বারাবনির প্রাক্তন সিপিআইএম বিধায়ককে নারী পাচারকারীর তকমা দিলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মুকুল রায়। বার্নপুরে প্রকাশ্য রাস্তায় দিলীপ সরকার খুন হওয়ার মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এল এই মন্তব্য। পুলিস অবশ্য এনিয়ে এখনই কিছু বলতে নারাজ। ইতিমধ্যে এই হত্যাকাণ্ডের ফরেনসিক তদন্ত শুরু হয়েছে।

বারাবনির প্রাক্তন সিপিআইএম বিধায়ক দিলীপ সরকার খুনের প্রতিবাদে যখন সরব নানা পক্ষ, তখন শাসক দল আক্রমণ শানাল খোদ নিহত নেতার উদ্দেশেই। রীতিমতো সাংবাদিক সম্মেলন করে এই কাজটি করলেন খোদ দলের শীর্ষনেতা মুকুল রায়।   

প্রতিদিনই বার্ণপুরের আপার রোড এলাকায় প্রাতঃভ্রমণে যেতেন বারাবণীর প্রাক্তন বিধায়ক সিপিআইএম নেতা দিলীপ সরকার। 

রবিবার তিনি প্রাতঃভ্রমণ করছিলেন স্থানীয় রাষ্ট্রহীন ক্লাবের মাঠের কাছে। হঠাত্ই এক মহিলাকে পিছনে নিয়ে মোটরবাইক চালিয়ে সেখানে পৌঁছয় এক যুবক। কিছু বুঝে ওঠার আগেই খুব কাছ থেকে গুলি করে দিলীপ সরকারকে। তাঁর পেটে দুটি গুলি  লাগে। বার্ণপুর ইস্কো হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

ওই এলাকার দাপুটে শ্রমিক নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন দিলীপ সরকার। তাঁর খুনের খবর ছড়িয়ে পড়তেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন এলাকার বাসিন্দা ও সিটু কর্মী সমর্থকেরা।

খুনের পিছনে তৃণমূল কংগ্রেসকেই দায়ী করেছেন সিপিআইএম সাংসদ বংশগোপাল চৌধুরী।

সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করেন ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞরা। জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় প্রত্যক্ষদর্শীদের।  

এদিকে খুনের প্রতিবাদে হীরাপুর থানায় বিক্ষোভ দেখান বাম কর্মী ও সমর্থকেরা। জেলা জুড়ে বিক্ষোভের পাশাপাশি সোমবার আসানসোল মহকুমায় বারো ঘন্টার বনধ ডাক দিয়েছে বামফ্রন্ট।







First Published: Monday, June 10, 2013, 21:40


comments powered by Disqus