রেকর্ডে `চ্যালেঞ্জ টু`

মুক্তির আগে থেকেই উত্তজনার পারদ ছিল চরমে। একেতো ব্লকবাস্টার বাংলা ছবির সিক্যুয়েল। তারওপর দেবের নতুন অবতার।

Updated: Oct 30, 2012, 06:44 PM IST

মুক্তির আগে থেকেই উত্তজনার পারদ ছিল চরমে। একেতো ব্লকবাস্টার বাংলা ছবির সিক্যুয়েল। তারওপর দেবের নতুন অবতার। ভরপুর অ্যাকশন। নতুন নায়িকা। সব মিলিয়ে শুরু থেকেই বক্সঅফিসে যথেষ্ট লক্ষ্মীলাভের সম্ভাবনা ছিল `চ্যালেঞ্জ টু`-র। মুক্তি পেতেই বাংলা ছবির নতুন রেকর্ড গড়ল `চ্যালেঞ্জ টু`। এই প্রথম কোনও বাংলা ছবি একসঙ্গে সারা দেশের ২৭০টি স্ক্রিনে মুক্তি পেল।
মুম্বইতে এক স্ক্রিনের প্রেক্ষাগৃহ, মাল্টিপ্লেক্স দু জায়গাতেই মুক্তি পেয়েছে `চ্যালেঞ্জ টু`। পাশাপাশি ছত্তিশগড়, বিহার, ওড়িশা, মধ্যপ্রদেশ ও অসমেরও বহু প্রেক্ষাগৃহে চলছে দেবের নতুন ছবি। এমনকী, ১৯ অক্টোবর ছবির মুক্তির দিন থেকেই সব হলেরই প্রায় ৬০% ভর্তি থাকছে বলেও দাবি করেছেন `চ্যালেঞ্জ টু`-র প্রযোজক মহেন্দ্র সোনি। তিনি বলেছেন, এই প্রথম কোনও বাংলা ছবি সারা দেশের এতগুলো হলে মুক্তি পেল। বাংলার বাইরে এত সাফল্যের সঙ্গে ব্যবসাও করেনি কোনও ছবি। সোনির মতই ছবির সাফল্যে পরিচালক রাজা চন্দও। বলিউডি ক্যামেরার কাজ, ঝকঝকে ছবি, অসাধারণ স্টান্ট, এডিটিংয়ের জন্যই `চ্যালেঞ্জ টু` অবাঙালি দর্শককেও আকৃষ্ট করছে বলে মনে করেন রাজা। উপরন্তু `চ্যালেঞ্জ টু`-র সঙ্গীত পরিচালনাও করেছেন জিত গাঙ্গুলি। প্যান-ইন্ডিয়ান দর্শকদের কাছে জিত বরাবরই জনপ্রিয়।
ছবিতে দেবের বিপরীতে রয়েছেন নবাগতা পূজা বোস। রয়েছেন আশীষ বিদ্যার্থী, রজতাভ দত্ত। সারা দেশে সাফল্যের পর এবার বিদেশেও `চ্যালেঞ্জ টু` স্ক্রিনিংয়ের পরিকল্পনা করছে ভেঙ্কটেশ ফিল্মস।