ইন্ডিয়ান আইডল টু-এর বিজয়ী সন্দীপ আচার্যর মৃত্যু

ইন্ডিয়ান আইডল-টুতে জয়ের পর আনন্দে কাঁদতে কাঁদতে সন্দীপ আচার্য বলেছিলেন, আমি ১০০ বছর বাঁচতে চাই, শুধু গানের জন্য। সেটা আর হল না। ২৯ বছর বয়সে জন্ডিস রোগে আক্রন্তা হয়ে মারা গেলেন সন্দীপ আচার্য। রবিবার সন্ধ্যায় গুরগাঁওয়ের মেদান্তা হাসপাতালে সন্দীপকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

Updated: Dec 15, 2013, 10:49 PM IST

------------
ইন্ডিয়ান আইডল-টুতে জয়ের পর আনন্দে কাঁদতে কাঁদতে সন্দীপ আচার্য বলেছিলেন, আমি ১০০ বছর বাঁচতে চাই, শুধু গানের জন্য। সেটা আর হল না। ২৯ বছর বয়সে জন্ডিস রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন সন্দীপ আচার্য। রবিবার সন্ধ্যায় গুরগাঁওয়ের মেদান্তা হাসপাতালে সন্দীপকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

গত ১০ ডিসেম্বর প্রচন্ড পেটে ব্যথার কারণে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সন্দীপকে। পরে জানা যায় তিনি জন্ডিসে আক্রান্ত। এর তিনদিন আগে অবশ্য সন্দীপকে রাজস্থানের বিকানিরের আগে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

ইন্ডিয়ান আইডলের দ্বিতীয় সংস্করণে জয়ী হওয়ার পর সন্দীপ `মেরা সাথ সারা জাঁহা` নামে একটি মিউজিক অ্যালবাম বের করেন। দারুণ জনপ্রিয় হয় সেই অ্যালবামটি। ক দিনের মধ্যে সন্দীপের আরও একটি অ্যালবাম রিলিজ করার কথা ছিল। অ্যালবামটির নাম `ও সানম তেরে বিনা`। কিন্তু শেষ তার আগে অকালে ঝরে গেল সঙ্গীতপ্রেমী এই মানুষটির প্রাণ।

ইন্ডিয়ান আইডল-এ ফারহা খান, অনু মালিক, সোনু নিগম এই তিন বিচারকেরই প্রথম পছন্দ ছিলেন সন্দীপ। তবে সন্দীপকে সবচেয়ে বেশি ভালবাসতেন ফারহা খান। সন্দীপের মৃত্যুর খবর শুনে ফারহাই প্রথম টুইট করে লেখেন আমার চোখে জল।

শ্রেয়া ঘোষালও শোকপ্রকাশ করেন। সোনি এন্টারটেনমেন্ট টেলিভিশনেও সন্দীপের মৃত্যুর খবর প্রকাশ করে শোকজ্ঞাপন করা হয়। সঞ্চালিকা মিনি মাথুরকেও এই খবর শোনার পর কাঁদতে দেখা গেল।