"প্রত্যাশার থেকে পাওনা বেশি": বিদ্যা

Last Updated: Saturday, March 10, 2012 - 19:10

`দ্যা ডার্টি পিকচার` ছবি দিয়ে শুধুমাত্র রূপোলি পর্দায় ঝড় তোলেননি এই শতকের `স্মিতা` বিদ্যা বালন। `সিল্ক` চরিত্রে তাঁর অনবদ্য অভিনয়ের জন্য হাতে তুলে নিয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অভিনেত্রীর সম্মান। আর তাছাড়া বছরের শুরু থেকেই বাজিমাত করে সেরা অভিনেত্রীর বহু পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছেন তিনি। সুজয় ঘোষ পরিচালিত তাঁর নতুন ছবি `কাহিনী` মুক্তির শুরুতেই জয় করছে দর্শকের মন। এক অন্তঃসত্ত্বা নারীর তাঁর স্বামীকে খোঁজার `কাহিনি`। ছবির পরিচালক জানিয়েছেন "কাহিনি আমার নয়, বিদ্যার ছবি। ছবির নায়কও বিদ্যাই।"
বিদ্যা জানিয়েছেন "আমি খুবই খুশী এইমুহূর্তে। আসলে আমার এই অনুভূতিটা প্রকাশ করার মত ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না আমি। " তিনি আরও জানান, "জীবনে একটা জাতীয় পুরস্কার আশা করেছিলাম। মাত্র ৭ বছর হল বলিউডে পা রেখেছি। ইতিমধ্যেই আমি একটা জাতীয় পুরস্কার জিতে নিয়েছি। আমি খুবই সন্তুষ্ট।"
২০০৫ সালে ছবি `পরিণীতা` ছবি দিয়ে টিনসেল টাউনে পা রেখেছিলেন বিদ্যা। প্রথম ছবিতেই নিজের অভিনয় দক্ষতার জোরে `ফিল্ম ফেয়ার`এর মঞ্চে জিতে নিয়েছিলেন সেরা নবাগত অভিনেত্রীর পুরস্কার। কিন্তু ২০১১ সাল ছিল বিদ্যার জন্য স্মরণীয়। `নো ওয়ান কিল্ড জেসিকা` ও `দ্যা ডার্টি পিকচার`এ তাঁর অসাধারণ অভিনয় বলিউডে যোগ করেছে নতুন মাত্রা। একই সঙ্গে অভিনয়কে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন `টিনসেল টাউন`এর অভিনেত্রীদের দিকে।
কখনও বোনের হত্যার নীরব প্রতিবাদ। কখনও আবার `ডার্টি সিল্ক` হয়ে পুরুষ হৃদয়ে ঝড় তোলা। এবার এক অন্তঃসত্ত্বা নারীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি। গতানুগতিক গণ্ডি থেকে বেড়িয়ে বরাবরই তাঁকে দেখা গিয়েছে নতুন কোনও ভূমিকায়। `কাহিনি` মুক্তির শুরুতেই বিদ্যার অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ চিত্র সমালোচকরা। বলাই বাহুল্য যে বলিউড এখন বিদ্যার দখলে।



First Published: Thursday, March 22, 2012 - 18:59


comments powered by Disqus