তাঁর জন্য পোশাক ত্যাগ করেছেন, অথচ মোদীর ব্যাপারে কিছুই জানেন না মেঘনা

তাঁর জন্য পোশাক ত্যাগ করেছেন, অথচ মোদীর ব্যাপারে কিছুই জানেন না মেঘনা

তাঁর জন্য পোশাক ত্যাগ করেছেন, অথচ মোদীর ব্যাপারে কিছুই জানেন না মেঘনা নরেন্দ্র মোদীর সমর্থনে সবকিছুই ত্যাগ করেছেন তিনি। পোশাক খুলে নিজেকে পদ্মে শোভিত করেছেন। অথচ মোদীকে প্রায় চেনেনই না মডেল মেঘনা পটেল। ডিএনএকে দেওয়ার সাক্ষাতকারে প্রায় তাজ্জব করে দিলেন তিনি।

কিছুদিন আগেই বিবসনা হয়ে পদ্মফুলের বিছানায় শুয়ে মোদীর জন্য ভোট চেয়েছেন মেঘনা। কিন্তু সাক্ষাত্কারে মোগীর পুরো নাম, গ্রামের নাম, জন্ম তারিখ কিছুই সঠিক ভাবে বলতে পারলেন না মেঘনা। অথচ মেঘনা নিজেও গুজরাতের বাসিন্দা। তিনি বলেন, ""প্লিজ আমাকে পুনম পান্ডে, বীনা মালিক বা রাখি সওয়ান্তের সঙ্গে তুলনা করবেন না। আমি কোনও সস্তা প্রচারের জন্য কিছু করি না, মহত্ উদ্দেশ্যে দেশের ভালর জন্য প্রচার চালাচ্ছি আমি। মোদীই একমাত্র দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন। দুর্নীতি, অসচ্ছ্বতা ও আলস্য থেকে দেশকে জাগাতে পারেন। মোদী আদকের নেতা। লক্ষ মানুষের হৃদয়ে বিরাজ করেন তিনি। উনিই সেরা। আপনারা মোদীর জন্য ভোট করুন।``

মোদীর সমর্থনে নিজের অনাবৃত ছবি আপলোড করার পর থেকেই কাজ করছিল না তাঁর ওয়েবসাইট। কিন্তু সমর্থনের এই পথ কেন বেছে নিলেন তিনি? মেঘনা বলেন, ""মোদীজী একজন রাজনৈতিক নেতা। উনি মিছিল করবেন, বক্তৃতা দেবেন, নিজের পদ্ধতিতে প্রচার চালাবেন। আমি একজন অভিনেত্রী। আমি মনে করেছি এইভাবেই সবথেকে বেশি মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাবে। সবথেকে বেশি মানিুষের কাছে পৌছনো যাবে। যদি আমি শাড়ি পরে প্রচারে নামতাম তাহলে কি কেউ এতো কথা বলতো? এভাবে প্রচারের আলোতেও আসতে পারতাম না।``

শোনা গিয়েছিল বিজেপি টাকা দিয়েছিল মেঘনাকে ফটোশুটের জন্য। তবে মেঘনা বললেন, ""এটা সম্পূর্ণ সাজানো কথা যেটা সব জায়গায় ছড়াচ্ছে। আমি আর কোনও বিকল্প পথ দেখিনি, কেউ আমাকে টাকাও দেয়নি। তবে কেউ যদি দেয়, আমি প্রস্তুত।`` অন্যদিকে রাহুল গান্ধী ও ইউপিএ সরকার প্রসঙ্গে মেঘনা বলেন,
""কংগ্রেসের দশ বছর সময়কালে দেশ শুধু ধর্ষণ, মিথ্যাচার ও প্রশাসনিক অক্ষমতা দেখেছে। এখন মোদীর আসার সময় এসেছে।``

আপাতত হিন্দি টেলিভিশন সিরিয়ালে অভিনয় করলেও মেঘনার স্বপ্ন হলিউড।




First Published: Friday, February 21, 2014, 12:48


comments powered by Disqus