সঞ্জয়ের জন্য অতিথি আপ্যায়ন নয়

সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া সময় শেষে আজ টাডা আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন সঞ্জয় দত্ত। আত্মসমর্পণ প্রক্রিয়া সমাপ্ত হলেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হবে পুণের ইয়েরওয়াড়া জেলে। সেখানেই আগামী তিন বছর থাকতে হবে মুন্নাভাইকে। কেমন থাকবেন জেলে তিনি? বলিউড অভিনেতার জন্য কি অপেক্ষা করছে বিশেষ খাতির না কি আর পাঁচজনের মতই থাকবেন তিনি? পুণের জেল কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, সঞ্জয়ের জন্য কোনও বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে না জেলে।

Updated: May 16, 2013, 05:58 PM IST

সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া সময় শেষে আজ টাডা আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন সঞ্জয় দত্ত। আত্মসমর্পণ প্রক্রিয়া সমাপ্ত হলেই তাঁকে নিয়ে যাওয়া হবে পুণের ইয়েরওয়াড়া জেলে। সেখানেই আগামী তিন বছর থাকতে হবে মুন্নাভাইকে। কেমন থাকবেন জেলে তিনি? বলিউড অভিনেতার জন্য কি অপেক্ষা করছে বিশেষ খাতির না কি আর পাঁচজনের মতই থাকবেন তিনি? পুণের জেল কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিয়েছে, সঞ্জয়ের জন্য কোনও বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে না জেলে। তবে তাঁর নিরাপত্তার সমস্ত রকম ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছে জেল কর্তৃপক্ষ। জেলের অন্যান্য দাগী অপরাধীরা যাতে সঞ্জয়ের সংস্পর্শে না আসতে পারে সেই ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।
এর আগে ১৮ মাস জেলে থাকার সময় কাঠের কাজ শিখেছিলেন সঞ্জয়। সেইসময় একটি চেয়ারও বানিয়েছিলেন তিনি। এবার চাষবাস, বেকিং বা রান্নার দায়িত্ব নিতে পারেন তিনি। ইয়েরওয়াড়া জেল সূত্রে খবর, কড়া নিরাপত্তা বিশিষ্ট `আন্ডা সেলে` (ডিম্বাকৃতি কক্ষ) রাখা হতে পারে সঞ্জয়কে। এই সেলের অর্ধকটা মাটির নিচে। যেইসব সাজাপ্রাপ্তদের প্রাণের আশঙ্কা রয়েছে তাদেরকে রাখা হয় এই বিশেষ কক্ষে। তবে এই কক্ষেই গত বছর জুন মাসে পুণের দুজন গ্যাংস্টারের হাতে খুন হন ইন্ডিয়ান মুজাহিদ্দিন জঙ্গি কাতিল সিদ্দিকি।