ক্যাট, রনবীরের লুটেরা

বহুদিন ধরেই মিডিয়ার কাছে লুকোচুরি খেলছিলেন দুজনে। তবে এবার বোধহয় লুকোতে লুকোতে দুজনেই ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। তাই মিডিয়ার সামনে এলেন স্বাভাবিক ভাবেই। শুক্রবার দুজনে একসঙ্গে গেলেন লুটেরার বিশেষ স্ক্রিনিং দেখতে। ক্যাটরিনা বসেছিলেন গাড়ির পিছনের সিটে। রনবীর সামনে ড্রাইভারের পাশে। দুজনের কেউই চেষ্টা করেননি মিডিয়ার চোখ থেকে নিজেদের বাঁচাতে।

Updated: Jul 23, 2013, 06:18 PM IST

বহুদিন ধরেই মিডিয়ার কাছে লুকোচুরি খেলছিলেন দুজনে। তবে এবার বোধহয় লুকোতে লুকোতে দুজনেই ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। তাই মিডিয়ার সামনে এলেন স্বাভাবিক ভাবেই। শুক্রবার দুজনে একসঙ্গে গেলেন লুটেরার বিশেষ স্ক্রিনিং দেখতে। ক্যাটরিনা বসেছিলেন গাড়ির পিছনের সিটে। রনবীর সামনে ড্রাইভারের পাশে। দুজনের কেউই চেষ্টা করেননি মিডিয়ার চোখ থেকে নিজেদের বাঁচাতে। বরং বেশ স্বাভাবিক ভাবেই মিডিয়ার সামনে আচরণ করলেন তাঁরা। এর আগে ডী-ডে ছবির স্ক্রিনিংয়েও দুজনে একসঙ্গে গিয়েছিলেন। মিডিয়ার ক্যামেরাকেও বাধা দেননি দুজনে।
কিছুদিন আগেই দুবাই আর স্পেনে একসঙ্গে সময় কাটিয়ে এসেছেন দুজনে। মায়েদের সঙ্গে একসঙ্গে সময় কাটিয়ে এসেছেন লন্ডনেও। মুম্বইতে আগে একই অনুষ্ঠানে গেলেও আলাদা যেতেন দুজনে। তবে গত সপ্তাহে ক্যাটের জন্মদিনে অবশ্য মুম্বইয়ের এক পাঁচতারা রোস্তারাঁয় একসঙ্গে নৈশভোজ সারতে গিয়েছিলেন দুজনে। ক্যাটরিনাকে একজোড়া কানের দুলও উপহার দেন রনবীর। এরপর একসঙ্গে যান কিরণ রাও-আমির খানে আয়োজিত শিপ অফ থেসাসের বিশেষ স্ক্রিনিংয়ে। তারপর আমির-কিরণের বাড়ির পার্টিতেও যান তাঁরা। সেখান থেকে বেরিয়ে রনবীরের বাড়ি।
আপাতত বেশরম ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত রনবীর। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে রয় ও বম্বে ভেলভেট। ক্যাটরিনার হাতে রয়েছে ধু থ্রি ও ব্যাং ব্যাং।