ছোট পর্দায় আসছেন ঋতুর রাঙা পিসিমা

এক দশক আগে আগাথা ক্রিস্টির মিস মার্পলকে রাঙা পিসিমার(শুভ মহরত) রূপ দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণ। মৃত্যুর আগে সেই রাঙা পিসিমাকেই ছোট পর্দায় আনার পরিকল্পনা ছিল তাঁর। প্রয়াত পরিচালকের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে খুব শিগগিরই রাঙ পিসিমার প্রথম পর্ব ছোট পর্দায় আনতে চলেছেন ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর শুভঙ্কর চক্রবর্তী।

Updated: Jun 5, 2013, 09:49 PM IST

এক দশক আগে আগাথা ক্রিস্টির মিস মার্পলকে রাঙা পিসিমার(শুভ মহরত) রূপ দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণ। মৃত্যুর আগে সেই রাঙা পিসিমাকেই ছোট পর্দায় আনার পরিকল্পনা ছিল তাঁর। প্রয়াত পরিচালকের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে খুব শিগগিরই রাঙ পিসিমার প্রথম পর্ব ছোট পর্দায় আনতে চলেছেন ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর শুভঙ্কর চক্রবর্তী।
রাঙা পিসিমা সিরিজের প্রথম টেলিফিল্ম তাহার নামটি রঞ্জনা শেষ করেছিলেন ঋতুপর্ণ। শুভ মহরত ছবিতে রাঙা পিসিমার ভূমিকায় ছিলেন রাখি গুলজার। ছোট পর্দার রাঙা পিসিমা অলোকানন্দা রায়। রয়েছেন সাহেব চট্টোপাধ্যায়, গার্গী রায়চৌধুরীও। ষোলো বছর পর ঋতুর সঙ্গে কাজ করেছিলেন গার্গী। তাঁর কথাতে উঠে এল শুটিংয়ের স্মৃতি। "আমার কাছে এখনও ঋতুদার লেখা চিত্রনাট্য রয়েছে। তাছাড়াও ঋতুদা ওর প্রিয় কানের দুল আমাকে দিয়েছিলেন যেটা আমি শুটিংয়ে পরেছিলাম। সিরিয়ালে রঞ্জনা(আমার চরিত্র) আত্মহত্যা করবে। আমি ঋতুদার কাছে জানতে চেয়েছিলাম আমার চরিত্রের কী হবে? ঋতুদা হেসে বলেছিলেন, "সোনা, আমি রোলটা বাড়িয়ে দেব। সত্যান্বেষী শেষ করেই শুটিং শুরু করব" ঋতুদা কথা রাখতে পারলেন না।"
একই রকম আবেগ ভেসে উঠেছে সাহেব চট্টোপাধ্যায়ের কথাতেও। "আমি সত্যিই ধন্য। এবার থেকে আমার বায়োডাটায় লিখতে পারব যে আমি একজন কিংবদন্তির সঙ্গে কাজ করেছি।"