অস্কারে বঞ্চিত প্রাদেশিক ছবি: ঋতুপর্ণ

Last Updated: Friday, September 28, 2012 - 14:43

অস্কার নমিনেশনে বলিউডি ফিল্মের আধিপত্যে ক্ষুব্ধ ঋতুপর্ণ। বলিউডি ছবি ও কিছু বিশেষ ধরণের মারাঠি ছবি ছাড়া অন্যান্য ভাষার ছবিকে অস্কারে উপেক্ষা করা হয়ে বলে এবারে টুইটারে তোপ দাগলেন ঋতুদা। মঙ্গলবার সন্ধেবেলা ঋতুপর্ণ টুইট করেন, "বরফি আমি দেখিনি। কাজেই বরফি অস্কারে যাওয়ার যোগ্য কি যোগ্য না সেবিষয়ে মন্তব্য করতে পারবো না। শুধু এটুকুই বলতে চাই ভারতের প্রায় সব অস্কার নমিনেশনই হয় বলিউড থেকে। কিছু বিশেষ ভাবে `পলিটিক্যালি প্রেফারড` মারাঠি ছবি ছাড়া। কেন এই বিভেদ"?
গত পাঁচ বছরে মারাঠি ছবি `হরিশচন্দ্রাচি ফ্যাক্টরি` (২০০৯) ও `আদামিনতে মাকান আবু` (২০১১) ছাড়া বাকি সবকটি অস্কার নমিনেশনই বলিউড থেকে করা হয়েছিল। "সারা ভারতের প্রাদেশিক ছবির একটা সমৃদ্ধ ট্র্যাডিশন রয়েছে। তবে কেন বারবার বলিউড ছবিকেই বেশি প্রাধন্য দেওয়া হচ্ছে?" টুইট করেন ঋতুপর্ণ। দহন, উত্সব, চোখের বালি, রেনকোট, দোসর, দ্য লাস্ট লিয়ার, সব চরিত্র কাল্পনিক এবং আবহমানের মতো একাধিক জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ছবি করা সত্ত্বেও একবারও অস্কার নমিনেশন না পাওয়ায় স্বাভাবিক ভাবেই হতাশ ঋতুপর্ণ।
এদিন টুইটারে করে ঋতুদা আরও জানান, "আমি মনে করি আমার নিজের কিছু ছবি অস্কার নমিনেশন পাওয়ার যোগ্য ছিল। অনুরাগকে আমি খুব ট্যালেন্টেড একজন পরিচালক বলে মনে করি। কিন্তু আমার খারাপ লাগে বারবার যাখন প্রাদেশিক ছবি বলিউড ছবির পিছনের সারিতে জায়গা পায়। বলিউড ছবিই কি চিরকাল ভারতীয় ছবির প্রতিনিধিত্ব করে যাবে? ভারতে চলচ্চিত্রপ্রেমী বহু মানুষ রয়েছেন। কিন্তু তাঁদের মধ্যে খুব কমই ছবির গুণাগুন বিচার করতে পারেন। কাজেই আমার ভয় হয়, এতে ছবি তৈরির উদ্দেশ্যই না বৃথা হয়ে যায়"।



First Published: Friday, September 28, 2012 - 14:49


comments powered by Disqus