বিচারক ছুটিতে, তাই সলমনের ভাগ্য ঝুলেই রইল

বিচারক ছুটিতে, তাই সলমনের ভাগ্য ঝুলেই রইল

বিচারক ছুটিতে, তাই সলমনের ভাগ্য ঝুলেই রইলবিচারক ছুটিতে তাই সলমন খানের হিট অ্যান্ড রান মামলার শুনানি পিছিয়ে গেল। চলতি মাসের ২৯ তারিখ পর্যন্ত এই মামলা পিছিয়ে গেল বলে আদালত সূত্রে জানানো হয়েছে। অনিচ্ছাকৃত খুনের অভিযোগকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে আবেদন করেছিলেন সলমন খান৷

২০০২ সালের পথ দুর্ঘটনা মামলায় এক ব্যক্তির মৃত্যুর দায়ে দশ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে সলমন খানের। বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের এক আদালত মহারাষ্ট্র সরকারের এই মামলার আবেদন গ্রহণ করেছে। মুম্বইয়ের বান্দ্রা এলাকায় সলমনের গাড়ির তলায় চাপা পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়৷ জখম হন চারজন৷

আপাতত সলমনের বিরুদ্ধে ৩০৪(১), (বেপরোয়া ও নিয়ন্ত্রণহীন গাড়ি চালানো) ধারায় মামলা চলছে। যার শাস্তি স্বরূপ সর্বোচ্চ ২ বছর পর্যন্ত কারাবাস হতে পারে সলমনের। কিন্তু, ৩০৪(২) (ইচ্ছাকৃত নয়, কিন্তু এমন কাজে যদি কোনও মানুষের মৃত্যু হয়) ধারায় তাঁর শাস্তির মেয়াদ ১০ বছর পর্যন্তও হতে পারে। সলমনের আইনজীবী দীপেশ মেহতা জানিয়েছেন, আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি তাঁকে আদালতে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

এগারো বছর আগে ২০০২ সালে সলমনের এসইউভি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাথে উঠে পড়ে। সেই সময় তাঁর গাড়ির ধাক্কায় ফুটপাথে ঘুমন্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। ২০০৫ সালে তাঁর বিরুদ্ধে বেপরোয়া ও নিয়ন্ত্রণহীন গাড়ি চালানোর অপরাধে মামলা শুরু হয়। তবে মুম্বই পুলিস চেয়েছিল সলমনের বিরুদ্ধে আরও কঠোর অপরাধের অভিযোগে মামলা রুজু করা হোক। সেই কারণেই আদালতে ৩০৪(২) ধারায় মামলা দায়ের করার আর্জি জানায় পুলিস। সেই মামলাটি গ্রহণ করেছে আদালত।

First Published: Tuesday, April 09, 2013, 21:39


comments powered by Disqus