ভিসা পেয়ে গেলেন সলমন

অবশেষে ব্রিটিশ ভিসা পেলেন সলমন খান। এক সপ্তাহের মধ্যেই লন্ডন রওনা হবেন তিনি। এর আগে একবার ব্রিটিশ ভিসা বাতিল হয়েছে সলমনের। মনে করা হচ্ছে বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে ঘুমন্ত ফুটপাথবাসীকে পিষে মারার ঘটনায় জেল হতে পারে তাই স্টাইলিশ খানের ভিসাতে আপত্তি করেছিল গ্রেট ব্রিটেন।

Updated: Aug 6, 2013, 06:43 PM IST

অবশেষে ব্রিটিশ ভিসা পেলেন সলমন খান। এক সপ্তাহের মধ্যেই লন্ডন রওনা হবেন তিনি। এর আগে একবার ব্রিটিশ ভিসা বাতিল হয়েছে সলমনের। মনে করা হচ্ছে বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে ঘুমন্ত ফুটপাথবাসীকে পিষে মারার ঘটনায় জেল হতে পারে তাই স্টাইলিশ খানের ভিসাতে আপত্তি করেছিল গ্রেট ব্রিটেন।
সলমনের সিনেমা `কিক`-এর শ্যুটিং চলছে ব্রিটেন। সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার এই সিনেমার শ্যুটিংয়ের জন্যই ব্রিটেনে যাওয়ার দন্য ভিসার প্রয়োজন হয়েছিল সলমনের। নায়ককে ছাড়াই পরিচালক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালার ছবির শ্যুটিং চলছে লন্ডনে। সলমন এখনও এ দেশে। যাওয়ার কথাও ছিল। ঠিক তার মুখে ভিসা বাতিল।
সলমনের এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু বলেন, “২৪ জুলাই আদালত চার্জ গঠন করেছে। ১৯ অগস্ট পর্যন্ত শুনানি মুলতুবি থাকবে। সম্প্রতি ব্রিটেনে ভিসা দেওয়া নিয়ে কড়াকড়ি শুরু হয়েছে। তার জেরেই হয়তো এই সিদ্ধান্ত।” সলমনের ছবির ইউনিটের এক জন অবশ্য জানিয়েছেন, “আমরা আবার ভিসার জন্য আবেদন জানাব। একটা সপ্তাহ অপেক্ষা করে দেখা যাক, কী হয়। আশা করি তার মধ্যে ভিসা পেয়ে যাবে সলমন। ইতিমধ্যেই শ্যুটিংয়ে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে।”
সলমনের বাবা সেলিম খান অবশ্য ভিসা-বাতিল কথাটা মানতেই নারাজ। সেলিম বললেন, “কিছু পদ্ধতিগত ভুল হয়েছে। সলমনের এখনও ১০ বছর ট্যুরিস্ট ভিসা রয়েছে। এবং সেটা বৈধও। যদিও কাজের অনুমতি পেতে গিয়ে কিছু অসুবিধার সম্মুখীন হয়েছে ও। ওদের আসলে কিছু কাগজপত্র চাই। আমরা দিয়ে দেব।” সেলিম আরও বলেন, “ভিসা বাতিল করা হয়নি, সাময়িক ভাবে অনুমতি দেওয়া হয়নি মাত্র।”
শিয়রে শমন। ২০০২ সালে বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে ঘুমন্ত ফুটপাথবাসীকে পিষে মারার ঘটনায় জেল হতে পারে ১০ বছর পর্যন্ত। ইতিমধ্যেই অনিচ্ছাকৃত খুনের চার্জ গঠন করা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। আদালতের দোরে ঘুরতে ঘুরতে বাতিল করতে হয়েছে শ্যুটিংয়ের বহু ডেট। এ বার ব্রিটেনের ভিসা বাতিল করার ঘটনা সলমন খানের কপাল চিন্তার ভাঁজটা আরও বাড়াবে ।