জেলে মুন্নাভাই, আতান্তরে বলিউড

শেষরক্ষা হল না। অনেক চেষ্টা করেও হাজতবাস থেকে বাঁচতে পারলেন না মুম্বইয়ের মুন্নাভাই। শীর্ষ আদালতের নির্দেশে সাড়ে তিন বছরের জেল হয়েছে সঞ্জয়ের। তবে সঞ্জয় একা জেলে গেলেন না, অনিশ্চিত করে গেলেন সাত ছবির ভবিষ্যত। ভাসিয়ে দিয়ে গেলেন প্রচুর লগ্নিকারীকে।

Updated: Mar 21, 2013, 06:52 PM IST

শেষরক্ষা হল না। অনেক চেষ্টা করেও হাজতবাস থেকে বাঁচতে পারলেন না মুম্বইয়ের মুন্নাভাই। শীর্ষ আদালতের নির্দেশে সাড়ে তিন বছরের জেল হয়েছে সঞ্জয়ের। তবে সঞ্জয় একা জেলে গেলেন না, অনিশ্চিত করে গেলেন সাত ছবির ভবিষ্যত। ভাসিয়ে দিয়ে গেলেন প্রচুর লগ্নিকারীকে।
শীর্ষ আদালতের শাস্তি ঘোষণার সময় মোট তিনটি ছবির শুটিং করছিলেন সঞ্জয়। এছাড়াও তাঁর হাতে রয়েছে আরও চারটি ছবি। শের, জঞ্জীর ও উঙ্গলি। এই তিনটি ছবির শুটিং মাঝপথে ফেলেই জেলে যেতে হল সঞ্জুবাবাকে। জঞ্জীরের রিমেকে শের খানের ভূমিকায় ছিলেন সঞ্জয়। তাঁর হাতে রয়েছে প্রাচি দেশাইয়ের বিপরীতে পুলিসগিরি, রাজকুমার হিরানির পিকে। রাজকুমার গুপ্তা পরিচালিত ঘনচক্কর ছবিতে ক্যামেও রোলে থাকার কথাও সঞ্জয়ের। এমনকী ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল মুন্নাভাই সিরিজের পরবর্তী ছবি মুন্নাভাই চলে দিল্লিরও।
এই সবকটি ছবিরই মুক্তির দিন ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল। ২০১৪ সালের মধ্যেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ছবিগুলোর। কিন্তু আপাতত আগামী সাড়ে তিন বছর গরাদের পিছনেই থাকতে হবে খলনায়ককে। তাই অথই জলেই পড়ে গেলেন প্রযোজকরা।