''ধর্ম নয়, আমি রাজনীতির শিকার'', কমল

Last Updated: Thursday, January 31, 2013 - 11:16

বহু টালবাহানার পর অবশেষে দেশের মধ্যে প্রথম মুম্বইতে মুক্তি পেল 'বিশ্বরূপম'-এর হিন্দি সংস্করণ। অন্যদিকে, আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে কমল হাসান জানালেন গোটা ঘটনায় আসলে ভারতের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।  তাঁর স্বপ্নের প্রকল্প 'বিশ্বরূপম'-কে ঘিরে এই বিতর্ক একেবারেই অনঅভিপ্রেত বললেন প্রখ্যাত এইঅভিনেতা। আজ তিনি জানিয়েছেন গোটা ঘটনায় তিনি পীড়িত। কারও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করা তাঁর উদ্দেশ্য নয় বলেও দাবি করলেন তিনি। তবে এর সঙ্গেই কমল হাসান আবারও জানিয়ে দিলেন ''ধর্ম নয়, আমি রাজনীতির শিকার।'' 
আজকের সাংবাদিক সম্মেলনে কমল হাসান কিছুটা সমালোচনার সুরেই বলেন ''সরকারের কাছে অনুরোধ এই ভাবে কোন সিনেমাকে ছাপ মেরে দেবেন না।'' একদিন আগেই প্রয়োজনে দেশ ছেড়ে যাওয়ার কথা বলেছিলেন এই বিশিষ্ট অভিনেতা-প্রযোজক-পরিচালক। আজও সেই প্রসঙ্গ টেনে এনে তিনি জানালেন এই রকম মন্তব্য করার জন্য তিনি মোটেও দুঃখিত নন। সমগ্র বিষয়টি নিয়ে তিনি অতন্ত ক্ষুব্ধ ছিলেন। এখনই দেশ ছেড়ে না গেলেও তাঁর ক্ষোভ মোটেই কমেনি। এই ঘটনা থেকে কেউই লাভবান হবেন না বলেও মনে করেন তিনি। তবে গোটা ঘটনায় সংবাদমাধ্যমের ভূমিকায় তিনি অভিভূত বলেও জানান কমল হাসান। এর সঙ্গেই 'বিশ্বরূপম'-এর সমর্থনে যাঁরা গলা তুলেছেন তাঁদেরকেও আজকের সাংবাদিক সম্মেলনে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।
অন্যদিকে, আজ 'বিশ্বরূপম' প্রসঙ্গে অবশেষে মুখ খুললেন তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা। বৃহস্পতিবার একটি সাংবাদিক  সম্মেলনে ডিএমকে প্রধান জানিয়ে দিলেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করতেই তামিলনাড়ুতে 'বিশ্বরূপম'-এর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তার সঙ্গে সরকারের সিদ্ধান্তের সাফাই গেয়ে জয়ললিতা বলেছেন ব্যক্তিগত ভাবে কমল হাসানের সঙ্গে তাঁর সরকারের কোন বিরোধ নেই। কিন্তু রাজ্যে হিংসার পরিবেশকে আটকাতেই তাঁদের এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে বলে জানান 'আম্মাজি'। 
সাংবাদিক সম্মেলনে জয়ললিতা বলেন ''চব্বিশটি মুসলিম সংঘটন আমাদের কাছে এই সিনেমাটির প্রদর্শনের বিরোধীতা করে পিটিশন জমা দিয়েছে। এই অবস্থায় আমারা বিশ্বরূপমকে ছাড়পত্র দিলে এই সংঘটনগুলির প্রতিবাদ হিংসাত্মক রূপ নিতে পারে বলে আমরা আশঙ্কা করছি।'' ডিএমকে সুপ্রিমো আরও জানিয়েছেন রাজ্যে মোট ৫২৪টি প্রেক্ষাগৃহে নিরাপত্তা দেওয়ার মত লোকবল তাঁর সরকারের নেই।
অন্যদিকে, নাটকীয় ভাবে সিদ্ধান্ত বদলিয়ে এখনই সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছেন না কমল হাসান। মঙ্গলবার মাদ্রাজ হাই কোর্ট নিষেধাজ্ঞা তুললেও বুধবার ফের এই ছবির মুক্তির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি রাখায় সুপ্রিম কোর্টে আইনি লড়াইয়ে যাওয়ার কথা বলেছিলেন কমল হাসান।
অন্যদিকে 'বিশ্বরূপম' বিতর্কে নিজের টুইটারে নিজের মত জানালের তথ্য সংস্কৃতি মন্ত্রী মণীশ তিওয়ারি। টুইটারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, "সময় এসেছে 'সিনেমাটোগ্রাফ আইন' পুনর্মূল্যায়ন করার, না হলে রাজ্যগুলি নিজেদের মতো করে সিনেমা সেন্সর করবে।"
সূত্রে খবর, সিনেমাটোগ্রাফ আইন সংস্কারের জন্য একটি কমিটি গঠন করতে চলেছেন মণীশ তিওয়ারি।
হাই কোর্টে মঙ্গলবারের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে তামিলনাড়ু সরকার যে আর্জি জানিয়েছিল তার ভিত্তিতেই নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে আদালত।
ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি সংখ্যালঘু সংগঠনের নেতার সঙ্গে বৈঠক করে 'বিশ্বরূপমের' বেশ কিছু অংশ বাদ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন কমল। এর পরেও সবুজ সঙ্কেত পেল না এই ছবি।



First Published: Thursday, January 31, 2013 - 19:19


comments powered by Disqus