টাকার দাম পড়ায় চড়ছে ভারতীয় মেডিক্যাল ট্যুরিজমের বাজার

Last Updated: Friday, October 18, 2013 - 19:43

কারও সর্বনাশে কারও পৌষমাস! টাকার পতনে নাটকীয় উত্থান ঘটছে ভারতেরই এক শিল্পক্ষেত্রের। মেডিক্যাল ট্যুরিজম। যার একপিঠে চিকিত্‍সার জন্য ভারতে পদার্পন। অন্য পিঠে সুলভে ভ্রমণ। ডলার, ইউরোর তুলনায় টাকার দাম পড়তেই বিদেশিদের মধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে হুড়োহুড়ি। কুয়েত থেকে কাতার, বাংলাদেশ থেকে ব্রিটেন, সকলেরই গন্তব্য এখন ভারত।
চিকিত্‍সার জন্য ভারতে বিদেশিদের ঢল নতুন নয়। ইউরোপ বা আমেরিকার তুলনায় এদেশে চিকিত্‍সার খরচ কম। বহু প্রতিবেশী রাষ্ট্র থেকেও অসুখবিসুখ সারাতে তামিলনাড়ু বা কেরলে ছুটে যান বহু মানুষ। কিন্তু সেই স্রোত এখন দ্বিগুণ বেড়ে গিয়েছে টাকার হাত ধরে। ডলার বা ইউরোর তুলনায় ভারতীয় মুদ্রা আরও সস্তা হয়েছে। আগে যেখানে চিকিত্‍সা করাতে ব্যয় হতো ১০ হাজার ডলার,তা ইদানিং ৭ হাজার ডলারেই হয়ে যাচ্ছে। ভারতে মেডিক্যাল ট্যুরিজমের বাজার এখন তুঙ্গে।
বণিকসভা অ্যাসোচেমের পরিসংখ্যান অনুযায়ী,গত ছ মাসে ভারতে বিদেশি রোগীর সংখ্যা বেড়েছে চল্লিশ শতাংশ। বর্তমানে ভারতে মেডিক্যাল ট্যুরিজমের বাজার সাড়ে সাত হাজার কোটি টাকার। দু হাজার পনেরো সালের মধ্যে তা বেড়ে বারো হাজার কোটি টাকায় পৌঁছাবে । এই শিল্পক্ষেত্রটির বার্ষিক বৃদ্ধির হার পঁচিশ শতাংশ হবে বলে অ্যাসোচেমের অনুমান। বাংলাদেশ, পাকিস্তান,আফগানিস্তান থেকে চিকিত্‍সা করাতে মানুষ ভারতে আগেও আসতেন। এখন সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে পশ্চিম এশিয়া এবং আফ্রিকা। সৌদি আরব, সিরিয়া , কাতার, আবু ধাবি থেকে বহু রোগী আসছেন ভারতে। তাঁদের পছন্দের রাজ্যের মধ্যে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ,কর্ণাটক,কেরল,তামিলনাড়ু,মহারাষ্ট্র এবং নয়া দিল্লি।     
পরিষেবা ও প্রযুক্তির অভাবনীয় উন্নতি ঘটিয়ে বেসরকারি চিকিত্‍সা ব্যবস্থার ভোল পাল্টে দিয়েছে দক্ষিণের কয়েকটি রাজ্য। শুধু রোগ নিরাময় নয়, বিদেশিদের জন্য নিত্যনতুন প্যাকেজ ঘোষণা করছেন ওই রাজ্যের ট্যুর অপারেটররা । দিল্লির কোনও হাসপাতালে রোগীর যখন চিকিত্‍সা চলছে,তাঁর আত্মীয়রা ঘুরে আসতে পারেন তাজমহল বা জয়পুর থেকে। সেই বন্দোবস্ত প্যাকেজেই থাকছে। হাসপাতাল আর হোটেলের সবচেয়ে নিপুণ মিলন ঘটাতে পেরেছে কেরল। মুন্নার বা কোভালামে বেড়ানোর ফাঁকেই আয়ুর্বেদ চিকিত্‍সার সুযোগ পাচ্ছেন ভিনদেশি অতিথি। সাম্প্রতিককালে বহু রাজ্যেই সেমিনার বা প্রশিক্ষণ শিবিরে যোগ দিতে আসছেন বিদেশি চিকিত্‍সকেরা। তাদের সুপারিশেও বহু রোগী ভারতে আসছেন। 



First Published: Friday, October 18, 2013 - 19:43


comments powered by Disqus