সেওয়াগ সাইক্লোনে দিল্লির চমকপ্রদ জয়

চমক বোধহয় একেই বলে। ক্রিকেট বোধহয় একেই বলে। টি-টোয়েন্টি বোধহয় একেই বলে। রবিবার কোটলায় যা ঘটল তাকে আর ওভাবে কীভাবে ব্যাখা করা যাবে! স্যর ভিভ রিচার্ডসকে আনতেই বদলে গেল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস।

Updated: Apr 21, 2013, 07:41 PM IST

মুম্বই-- ১৬১/৪, দিল্লি-- ১৬৫/১ (১‍৭ ওভার)
ম্যাচের ফল-দিল্লি জয়ী ৯ উইকেটে, ম্যাচের সেরা-বীরেন্দ্র সেওয়াগ
চমক বোধহয় একেই বলে। ক্রিকেট বোধহয় একেই বলে। টি-টোয়েন্টি বোধহয় একেই বলে। রবিবার কোটলায় যা ঘটল তাকে আর ওভাবে কীভাবে ব্যাখা করা যাবে! স্যর ভিভ রিচার্ডসকে আনতেই বদলে গেল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস।
আইপিএল সিক্সে বড় চমক উপহার দিয়ে টানা ছ ম্যাচ হারা দিল্লি ডেয়ারডেভিলস হারিয়ে দিল মুম্বই ইন্ডিয়ন্সকে। বীরেন্দ্র সেওয়াগের অনবদ্য অপরাজিত ৯৫ রানের ইনিংসে ভর করে এবারের আইপিএলে দিল্লি প্রথম জয় পেল। ৪০ তম জন্মদিনের আগে সচিনকে আজ নিজের ইনিংস উপহার দিলেন বীরু।
সচিন তেন্ডুলকর করেন ৪৭ বলে ৫৪ রান, আর রোহিত শর্মা ৪৩ বলে ৭৩ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন। খারাপ ফর্মে থাকা পন্টিং ব্যাট করতেই নামেননি। প্রথমে ব্যাট করে মুম্বই ইন্ডিয়ন্স যখন ১৬১ রানের ইনিংস গড়েছিল তখন সবাই ধরেই নিয়েছিল বারবার সাতবার হারতে চলেছে মাহেলা জয়বর্ধনের দল। কিন্তু কোটলা সেই কথাটাকেই প্রমাণ করল। আর যাকেই বিশ্বাস করো বাপু ক্রিকেটকে করো না। সেটাই হল। ওপেনিং জুটিতে সেওয়াগ-জয়বর্ধনে জুটি ১৫১ রানের রেকর্ড পার্টনারশিপ গড়ে এমনভাবে জিতিয়ে আনলেন যে কে বলবে এই ম্যাচটাকে ডেভিড বনাম গোলিয়াথের লড়াই হিসাবে দেখা হচ্ছিল।
৫৭ বলে ৯৫ রানের ইনিংস খেলে সেওয়াগ বোঝালেন জাতীয় দল থেকে বাদ পড়াটা তাঁর কতটা অভিমানে লেগেছে। বয়কট বলেছেন, সেওয়াগ আর কোনওদিন জাতীয় দলে খেলতে পারবেন না। সেওয়াগ আজ দুটো ওভার বাউন্ডারি আর ১৩টা বাউন্ডারি দিয়ে সাজানো ইনিংসটা সব সমালোচনাকে অন্তত কয়েক ঘণ্টার জন্য বাইরে পাঠালেন। যোগ্য সঙ্গত দিলেন জয়বর্ধনেও (৫৯ রান)।