ডার্বি জিতে প্লে অফের পথে সচিনরা

আইপিএলের মহারাষ্ট্র ডার্বিতে জিতে প্লে অফে ওঠা কার্যত নিশ্চিত করল মুম্বই ইন্ডিয়ন্স। পুণের ঘরের মাঠে সচিনরা কিছুটা সহজ জয়ই পেলেন। তবে পুণে ওয়ারিয়র্সকে মাত্রা ১১২ রানে বেঁধে রাখার পর, জয় যতটা সহজে আসার কথা ততটা সহজ হল না।

Updated: May 11, 2013, 07:57 PM IST

পুণে- ১১২। মুম্বই- ১১৬/৫ (১৮.৫ ওভার)
আইপিএলের মহারাষ্ট্র ডার্বিতে জিতে প্লে অফে ওঠা কার্যত নিশ্চিত করল মুম্বই ইন্ডিয়ন্স। পুণের ঘরের মাঠে সচিনরা কিছুটা সহজ জয়ই পেলেন। তবে পুণে ওয়ারিয়র্সকে মাত্রা ১১২ রানে বেঁধে রাখার পর, জয় যতটা সহজে আসার কথা ততটা সহজ হল না।
আজকের ম্যাচে জেতায় মুম্বই ইন্ডিয়ন্সের পয়েন্ট দাঁড়াল ১৩ ম্যাচে ১৮। অর্থাত্‍ বাকি তিনটে ম্যাচের মধ্যে অন্তত একটাতে জিততে পারলেই প্লে অফ নিশ্চিত সচিনদের। ধোনিরা ইতিমধ্যেই প্লে অফে উঠে গেছেন। রাজস্থান রয়্যালস পয়েন্ট তালিকায় তিন নম্বরে। দ্রাবিড়দের দলের পয়েন্ট ১৮। মুম্বই ইন্ডিয়ন্সের পরের তিনটে ম্যাচের মধ্যে দুটোই ঘরের মাঠে। সচিনদের পরের ম্যাচ সোমবার ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে সান রাইজার্সের বিরুদ্ধে।
আজ রোহিত শর্মার দলের জয়ের পিছনে বড় ভূমিকা নিলেন তিন পেসার। তাদের মধ্যে দুই বিদেশী আরেকজন অসমীয়া। অস্ট্রেলিয়ার জনসন, শ্রীলঙ্কার মালিঙ্গা, আর অসমের আবু নাচিম মিলিয়ে নিলেন ৬ উইকেট। এখানেই শেষ হয়ে গেল যুবরাজদের যাবতীয় প্রতিরোধ। যুবরাজ ৩৩ রানের একটা ইনিংস না খেললে সুব্রত রায়ের দলের স্কোর ১০০ এর গণ্ডি টপকাতো না।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে অশোদ দিন্দার প্রথম বলেই বোল্ড হয়ে যান স্মিথ। সচিনও (১২) বেশী দূর যেতে পারেননি। তবে রানটা এতটাই কম যে দারুণ ফর্মে থাকা রোহিত শর্মার ৩৭ রানের ইনিংসটাই জয়ের জন্য যথেষ্ট হয়ে গেল। দিন্দা দুটো উইকটে পেলেন।