বেহালার বামাচরণ রায় রোডে শাসকদল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ

বেহালার বামাচরণ রায় রোডে শাসকদল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ

ফের উত্তপ্ত বেহালা। এবার বেহালার বামাচরণ রায় রোডে গুলি চালানোর অভিযোগ। সিপিএম নেতা অরিন্দম ঝার বাড়ি লক্ষ্য করে অন্তত ৫ রাউন্ড গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। দাবি অরিন্দম ঝার। রাত দেড়টা নাগাদ এই হামলা হয়। যদিও বাড়ির বাইরে থেকে সকালে ৪টি গুলির খোল উদ্ধার করেছে পুলিস।  গোটা ঘটনায় রাজনৈতিক সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছেন বামনেতা অরিন্দম ঝা এবং তাঁর পরিবার। তাঁদের দাবি, রাতে হামলার নেপথ্যে শাসকদল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই। তবে অভিযোগ মানতে নারাজ তৃণমূল। এই ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই বলেই দাবি স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের।

কমিশনের নজরে মুখ্যমন্ত্রী কমিশনের নজরে মুখ্যমন্ত্রী

কমিশনের নজরে এবার খোদ মুখমন্ত্রী। তাঁর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ। সুন্দরবনকে জেলা ঘোষণা নিয়ে কমিশনের নজরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২৬ এপ্রিল রায়দিঘিতে তৃণমূল প্রার্থী দেবশ্রী রায়ের সমর্থনে সভা করেন মুখমন্ত্রী। ওই সভা থেকেই সুন্দরবনকে নতুন জেলা করার কথা বলেন তিনি। এই ঘোষণাকে হাতিয়ার করে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের অভিযোগ তুলে কমিশনে যায় বিরোধী শিবির। সেই প্রেক্ষিতে মুখ্যসচিব বাসুদেব বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়েছে কমিশন। তাঁর কাছে কমিশন জানতে চেয়েছে সুন্দরবনকে জেলা ঘোষণার সিদ্ধান্ত আগেই নেওয়া হয়েছিল? নাকি রায়দিঘির সভায় এই ঘোষণা হয়েছে।