প্রেসিডেন্সিতে হামলায় জেল হেফাজতে ৪

আজ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া পাঁচ জনের মধ্যে চারজনের জামিনের আবেদন নাকচ করে দিল আদালত। জামিন পেয়েছেন মুন্না সিং। তিনি সিটি কলেজের ছাত্র বলে জানা গেছে। পরীক্ষার কারণে ব্যাক্তিগত তিন হাজার টাকার বন্ডে জামিন পেয়েছেন তিনি। তবে আদালতের নির্দেশে মামলা চলাকালীন সপ্তাহে একদিন তদন্তকারী অফিসারের সামনে হাজিরা দিতে হবে মুন্নাকে। বাকি চারজনের ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এদের মধ্যে দু`জন সুরেন্দ্রনাথ কলেজের, একজন সিটি কলেজের ও একজন ম্যানেজমেন্টের ছাত্র বলে জানা গেছে।

Updated: Apr 12, 2013, 04:01 PM IST

আজ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া পাঁচ জনের মধ্যে চারজনের জামিনের আবেদন নাকচ করে দিল আদালত। জামিন পেয়েছেন মুন্না সিং। তিনি সিটি মেইন কলেজের ছাত্র বলে জানা গেছে। পরীক্ষার কারণে ব্যাক্তিগত তিন হাজার টাকার বন্ডে জামিন পেয়েছেন তিনি। তবে আদালতের নির্দেশে মামলা চলাকালীন সপ্তাহে একদিন তদন্তকারী অফিসারের সামনে হাজিরা দিতে হবে মুন্নাকে। বাকি চারজনের ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এদের মধ্যে দু`জন সুরেন্দ্রনাথ কলেজের, একজন সিটি কলেজের ও একজন ম্যানেজমেন্টের ছাত্র বলে জানা গেছে।
প্রেসিডেন্সিতে মঙ্গলবার হামলার ঘটনায় দু`জনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। আজ গ্রেফতার করা হয় আরও তিন জনকে। মুন্না সিংয়ের সঙ্গেই গ্রেফতার হয়ে ছিলেন অনন্যব্রত চক্রবর্তী, চিরঞ্জিৎ গায়েন, শুভজিৎ বর্মন ও জয়ন্ত হাওলাদার। ঘটনার দিন থেকে প্রেসিডেন্সির ছাত্র-ছাত্রী থেকে অধ্যাপক এবং অশিক্ষক কর্মীরা বার বার এই হামলার জন্য টিএমসিপিকে দায়ী করলেও তৃণমূলের পক্ষ থেকে তা অস্বীকার করা হয়। কিন্তু গ্রেফতার হওয়া প্রত্যেকেই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্য বলে জানা গেছে।
সরকারের পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হলেও সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত একাধিক ছবিতে প্রমাণিত ওই সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন পার্থ বসু, তথাগত সাহা সহ তৃণমূলের বেশ কিছু নেতা। একই কারণে অভিযুক্ত হয়েও কেন অধরা ওই নেতারা সেই নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।