সৌরভকে ভোট দাঁড়ানোর প্রস্তাবে বিজেপি ব্যর্থ, কংগ্রেস দাদার বাড়ির চৌকাঠে, ইয়েচুরি বললেন, ও আমাদের সঙ্গেই থাকবে

Last Updated: Sunday, December 15, 2013 - 18:57

সৌরভ গাঙ্গুলিকে রাজনীতিতে নামাতে রীতিমতো প্রতিযোগিতা শুরু হল রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে। বিজেপির প্রস্তাব তো ছিলই। রবিবার দুপুরে সৌরভের বাড়ি গেলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য। সৌরভকে কংগ্রেসের প্রতীকে ভোটে লড়াতে আশাবাদী তাঁরা। সৌরভের আশা ছাড়েননি বামেরাও।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন ছয় বছর আগে। অবসরের পর ক্রিকেট ভাষ্যকার, বিশেষজ্ঞ এমনকি টিভি শোয়ের সঞ্চালকের ভূমিকাতেও চূড়ান্ত সফল সৌরভ গাঙ্গুলি। এবার কি রাজনীতি? বিজেপি-র তরফে যে ভোটে লড়ার প্রস্তাব এসেছে, রবিবার ক্যালকাটা ক্লাবের অনুষ্ঠানে এসে স্বয়ং মহারাজও সেটা মেনে নিলেন।

বিজেপিকে এখনও কথা দেননি সৌরভ। কিন্তু সময় নষ্ট করতে রাজি নয় কংগ্রেস। রবিবার দুপুরেই তড়িঘড়ি বীরেন রায় রোডের বাড়িতে পৌছে যান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি প্রদীপ ভট্টাচার্য। সৌরভকে রাজি করানোর নির্দেশ নাকি এসেছে এক্কেবারে কংগ্রেসের শীর্ষ মহল থেকে। বাড়ি থেকে বেরিয়ে প্রদেশ সভাপতি অবশ্য বললেন, এ দেখা সে দেখা নয়। এটা নেহাতই সৌজন্য সাক্ষাত্‍।

প্রদেশ কংগ্রেস নেতাদের দাবি, সৌরভের বাবা চণ্ডী গাঙ্গুলি কংগ্রেস ঘরানার মানুষ ছিলেন। সৌরভ নিজেও সে পথে হাঁটবেন বলেই তাঁদের আশা। বামেরাও পিছিয়ে থাকতে নারাজ। বাম সরকারের আমলে মুখ্যমন্ত্রী সহ বহু বাম নেতার সঙ্গেই সৌরভের ঘনিষ্ঠতার কথা সবার জানা। ত্রিপুরায় সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের ফাঁকে সীতারাম ইয়েচুরির মন্তব্য, সৌরভ বাম মনোভাবাপন্ন। তাই তিনি বামপন্থীদের সঙ্গে থাকবেন বলেই মনে করেন তিনি।

বাকি রইল তৃণমূল। সৌরভের প্রতি রাজ্যের বর্তমান শাসক দলের মনোভাবটা এক সময় খুবই তিক্ত ছিল। কিন্তু সে ক্ষতে প্রলেপ পড়েছে অনেকটাই। তবে তৃণমূলের তরফে সৌরভের কাছে এখনও ভোটে লড়ার কোনও প্রস্তাব গিয়েছে বলে শোনা যায়নি। কংগ্রেসের চেষ্টাকে তীব্র ব্যঙ্গ করেছেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী।
তবে সৌরভকে প্রার্থী করতে বিজেপি-র তত্পরতা সম্পর্কে স্পিকটি নট তৃণমূল শিবির। সব মিলিয়ে সৌরভের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের মতো রাজনীতির ইনিংসটাও যে বেশ ঝড়ো আর বিতর্কিত হতে পারে, সে ইঙ্গিত কিন্তু এরমধ্যেই স্পষ্ট। সৌরভ শুধু জানিয়েছেন, তিনি ভাবছেন।



First Published: Sunday, December 15, 2013 - 16:03


comments powered by Disqus