ভাঙড় জলসা কাণ্ড, সাসপেন্ড মীর তাহের আলি

ভাঙড় কাণ্ডে অস্বস্তিতে তৃণমূল। ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমে প্রথমে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেয়। পরিস্থিতি সামলাতে যদিও তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেওয়া হয় ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে। মীর তাহের আলি সহ অন্য তৃণমূল নেতাদের সাসপেন্ড করে তৃণমূলের শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি। পাশাপাশি থানার অদূরে বিনা অনুমতিতে এমন একটি জলসা কী করে চলল। সেবিষয়ে ভাঙড় থানার কাছে জবাবদিহি চেয়েছে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর।

Updated: Jan 2, 2013, 06:48 PM IST

ভাঙড় কাণ্ডে অস্বস্তিতে তৃণমূল। ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমে প্রথমে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেয়। পরিস্থিতি সামলাতে যদিও তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেওয়া হয় ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে। মীর তাহের আলি সহ অন্য তৃণমূল নেতাদের সাসপেন্ড করে তৃণমূলের শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটি। পাশাপাশি থানার অদূরে বিনা অনুমতিতে এমন একটি জলসা কী করে চলল। সেবিষয়ে ভাঙড় থানার কাছে জবাবদিহি চেয়েছে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর।
মঙ্গলবার রাতেই ভাঙড়ে দলের প্রতিষ্ঠাদিবসে বিতর্কিত বিচিত্রানুষ্ঠানের বিষয়ে জেনেছিলেন তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। শীর্ষ নেতৃত্বের হস্তক্ষেপেই বন্ধ হয়েছিল অনুষ্ঠান। ড্যামেজ কন্ট্রোলে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আটচল্লিশ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন। শেষপর্যন্ত যদিও বুধবার টুইটে ডেরেক ওব্রায়েন জানান ভাঙড়ে জলসার উদ্যোক্তা মীর তাহের আলি সহ অন্য তৃণমূল নেতা-কর্মীকে সাসপেন্ড করল তৃণমূল। দলীয় শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির বৈঠকের পরে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে টুইটে জানান তিনি। অভিযুক্তদের বহিষ্কার করা হতে পারে বলেও টুইটে জানিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন। মীর তাহের আলির উদ্যোগেই ভাঙড় থানার সামনে বিনা অনুমতিতে জলসার আয়োজন করে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। ওই অনুষ্ঠানেই চলে উদ্দাম নাচ। এই ধরনের আচরণ কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না বলে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর। টুইটে এমনই জানিয়েছেন ডেরেক ওব্রায়েন।
ভাঙড় কাণ্ডে চাপের মুখে হলেও মীর তাহের আলি এবং তাঁর সহযোগীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল তৃণমূল। কিন্তু প্রশ্ন হল পার্ক স্ট্রিট কাণ্ডে বিতর্কিত মন্তব্য করা সত্ত্বেও কেন এখনও কোনও ব্যবস্থাই নেওয়া হল না কাকলি ঘোষদস্তিদারের বিরুদ্ধে ?