২৪ ঘণ্টার খবরের জের, জটিল রোগে আক্রন্ত শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি নিল হোম কর্তৃপক্ষ

Last Updated: Sunday, September 29, 2013 - 10:09

২৪ ঘণ্টার খবরের জের। মস্তিস্কের জটিল রোগে আক্রান্ত শিশুকে হাসপাতালে ভর্তির সিদ্ধান্ত নিল হোম কর্তৃপক্ষ। শিশুটিকে হাসপাতালের ভর্তির পরামর্শ দিলেও লিখিত আবেদন ছিল না। তাই ভর্তির অনুমতি দেয়নি জেলার চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটি। ২৪ ঘণ্টায় এখবর প্রচারিত হওয়ার পরেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। আজই লেকটাউনের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কথা পাঁচ মাসের গোপালের।   
৫ মে গভীর রাতে কলকাতার পাভলভ হাসপাতালে জন্ম হয় এই শিশুর। মা মানসিক ভারসাম্যহীন। রাতভর, অবহেলায় হাসপাতালের মেঝেতেই পড়েছিল  সদ্যোজাত। প্রথমে ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। পরে  চাইল্ড ওয়েল ফেয়ার কমিটির নির্দেশে কেষ্টপুরের শিশুগৃহ হোমে ঠাঁই হয় ৫ মাসের ছোট্ট শিশুটির। কারণ, সন্তানকে গ্রহণ করতে চাননি বাবা। তবে মানসিক হাসপাতাল থেকে স্ত্রীকে  ফিরিয়ে নিয়েছেন তিনি। হোমে আসার কয়েক মাসের মধ্যেই জানা যায় মস্তিষ্কের জটিল রোগ হাইড্রোসেফালাসে আক্রান্ত পাঁচ মাসের এই শিশু।
 
হাইড্রোসেফালাস। অর্থাত মস্তিষ্কে জল জমা। ফ্লুইড জমে স্বাভাবিকের থেকে অনেকটাই বড় হয়ে যায় মাথার আকার। এখনই হাসপাতালে অস্ত্রোপচার না হলে মৃত্যুও হতে পারে  শিশুটির। আশঙ্কা হোমের  স্বাস্থ্যকর্মীদের। আর এখানেই বিপত্তি। সরকারি নিয়ম আর বিধির ফাঁসে থমকে যায় শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করার প্রক্রিয়া। অভিযোগ, বিষয়টি নিয়ে রীতিমতো উদাসীন হোম কর্তৃপক্ষ।
 
উত্তর ২৪ পরগণা চাইল্ড ওয়েল ফেয়ার কমিটির কর্তারা অবশ্য বলছেন সরকারি নিয়মবিধির কথা। তাঁদের যুক্তি-
 
শিশু কল্যাণ কমিটির সাফাই, শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তির জন্য লিখিত ভাবে আবেদন জানায়নি হোম। লিখিত আবেদন এলে, খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেবে কমিটি। মঙ্গলবারের আগে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয়।
 
এদিকে ৫ মাসের এই শিশুর জীবনীশক্তি ক্রমশ ফুরিয়ে আসছে। শুধুমাত্র প্রশাসনিক জটিলতায়  তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে পাঁচ মাসের ছোট্ট গোপাল। চব্বিশ ঘণ্টায় এই খবর দেখানোর পরেই শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তির সিদ্ধান্ত নেয় হোম কর্তৃপক্ষ। শিশু কল্যাণ কমিটির তরফেও সবুজ সঙ্কেত মিলেছে। 
 



First Published: Sunday, September 29, 2013 - 10:09


comments powered by Disqus