বসিরহাটে আত্মঘাতী চিটফান্ড সংস্থার এজেন্ট

Last Updated: Tuesday, May 7, 2013 - 19:22

আমানতকারীদের টাকা ফেরাতে না পেরে উত্তর চব্বিশ পরগনার বসিরহাটে আত্মঘাতী হলেন এক চিটফান্ড সংস্থার এজেন্ট। হুগলির চুঁচুড়ায় চিটফান্ড সংস্থার কর্নধারকে খুনের ঘটনায় এক অভিযুক্ত গ্রেফতার করেছে পুলিস। পুলিস সূত্রে খবর, উত্তর কলকাতায় আত্মঘাতী হয়েছেন হুগলির ওই সংস্থার এক ডিরেক্টর। আমানত করা টাকা ফেরতের দাবি আজ একাধিক জেলায় বিক্ষোভ দেখান বিভিন্ন অর্থলগ্নী সংস্থার এজেন্ট এবং আমানতকারীরা। মালদায় সিল করে দেওয়া হয়েছে সারদা গোষ্ঠীর অফিস।
রবিবার রাতে হুগলির চুঁচুড়ায় অস্বাভাবিক মৃত্যু হয় এক চিটফান্ড সংস্থার মালিকের। নাম জয়ন্ত সরকার। ওইদিন রাতে হ্যালো ইন্ডিয়া চিটফান্ড সংস্থার মালিক জয়ন্ত সরকার বাড়ির ওপরতলায় বৈঠক করেন সংস্থার তিন এজেন্ট বিপ্লব বিশ্বাস, আবদুর রশিদ, অভিজিত্‍ সাহার সঙ্গে। বেশি রাতে ফিরে যায় ওই তিন এজেন্ট। সোমবার সকালে  বাড়ির ওপরের ঘরে স্বামীকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান স্ত্রী পায়েল সরকার।  তাঁর স্বামীকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ জানান পায়েল সরকার। ওই ঘটনায় তিন এজেন্টের বিরুদ্ধে চুঁচুড়া থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। এ দিন তল্লাসি চালিয়ে  জাগুলিয়ার বাড়ি থেকে অভিযুক্ত এজেন্ট বিপ্লব বিশ্বাকে গ্রেফতার করে চুঁচুড়া থানার পুলিস। বাকি দুজনের খোঁজে জারি রয়েছে তল্লাসি। এদিনই উত্তর কলকাতার বৃন্দাবন মল্লিক ফার্স্ট লেনের বাড়িতে উদ্ধার হয় ইন্দ্রজিত্‍ রায়ের ঝুলন্ত দেহ। পুলিস জানিয়েছে, ইন্দ্রজিত্‍ রায় হুগলির ওই চিটফান্ড সংস্থার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তিনি সংস্থার অন্যতম ডিরেক্টর বলেও পুলিস সূত্রে খবর। মানসিক অবসাদে ইন্দ্রজিত্‍ রায় আত্মঘাতী হয়েছেন বলে পুলিসের প্রাথমিক অনুমান।
 
আমানতকারীদের টাকা ফেরত দিতে না পেরে আত্মঘাতী হয়েছেন উত্তর চব্বিশ পরগনার একটি অর্থলগ্নি সংস্থার এজেন্ট। বেশ কিছুদিন আমানত সংগ্রহের পর মাসখানেক আগে সংস্থা বন্ধ করে উধাও হন বসিরহাটের সেল্ফ ট্রাস্ট এন্টারপ্রাইজ সংস্থার মালিক শান্তাপ্রসাদ তোলদার। এরপরই আমানতকারীরা টাকা ফেরতের দাবিতে চড়াও হন এজেন্ট মৃণাল মণ্ডলের বাড়িতে। হুমকি দেওয়া হয় তাঁকে। রবিবার কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন মৃণাল মণ্ডল। পরে কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিমের নির্দেশে এদিন সিল করে দেওয়া হয় মালদায় সারদা গোষ্ঠীর অফিস। সকালে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্র্টের উপস্থিতিতে সারদার ওই অফিস সিল করে দেয়  ইংরেজবাজার থানার পুলিস। আমানতের টাকা ফেরতের দাবিতে  নদিয়া জেলা প্রশাসনিক দফতরের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করেন শিবম গ্রুপ অফ কোম্পানির প্রায় একহাজার এজেন্ট ও আমানতকারী। বিক্ষোভকারীদের দাবি, সংস্থার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে পাওনা মেটানো হোক আমানতকারীদের। বাম জমানায় চালু হয়েছিল চিটফান্ড সংস্থা সারদা। সেকারণে সারদাকাণ্ডের যাবতীয় দায় নিতে হবে সিপিআইএমকেই। বাঁকুড়ার মাচানতলার জনসভা থেকে এদিন এমনটাই দাবি করেন জেলা তৃণমূল
নেতৃত্ব। গতকাল সারদাকাণ্ডে দোষীদের শাস্তি এবং আমানতকারীদের টাকা ফেরতের দাবিতে মাচানতলায় সমাবেশ করেছিল বামেরা। আজ পাল্টা সমাবেশের ডাক দেয় তৃণমূল। সারদাকাণ্ডে প্রতারিত আমানতকারীদের টাকা ফেরতের দাবিতে এদিন শিলিগুড়িতে মিছিল করে বস্তি উন্নয়ন সমিতি। ঘটনায় সিবিআই তদন্ত এবং দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়ে মহকুমা শাসককে স্মারকলিপি দেওয়া হয় মিছিলকারীদের তরফে। প্রতারিত, দরিদ্র বস্তিবাসীদের টাকা ফেরতের দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে বলে দাবি জানানো হয়।
 
 
 



First Published: Tuesday, May 7, 2013 - 23:21


comments powered by Disqus