কলকাতা ভুয়ো আর্থিক সংস্থার আখরা হয়ে উঠেছে: দিগ্বিজয় সিং

সারদার মতো চিটফান্ডগুলির বিরুদ্ধে আন্দোলন ছড়িয়ে দিতে এবার পথে নামল কংগ্রেস। আজ দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরে পথ অবরোধ করেন কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। মিছিলও করেন তারা। সুদীপ্ত সেনের মতো ভুঁইভোড় আর্থিক সংস্থাগুলির কর্ণধারদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। একই সঙ্গে গোটা ঘটনায় সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানানো হয়েছে।

Updated: Apr 21, 2013, 06:48 PM IST

সারদার মতো চিটফান্ডগুলির বিরুদ্ধে আন্দোলন ছড়িয়ে দিতে এবার পথে নামল কংগ্রেস। আজ দক্ষিণ কলকাতার ভবানীপুরে পথ অবরোধ করেন কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। মিছিলও করেন তারা। সুদীপ্ত সেনের মতো ভুঁইভোড় আর্থিক সংস্থাগুলির কর্ণধারদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস। একই সঙ্গে গোটা ঘটনায় সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানানো হয়েছে।
রবিবার কলকাতায় এসেছিলেন কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক দিগ্বিজয় সিং। বিধান ভবনে প্রদেশ নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। বৈঠক শেষে সাংবাদিক দের মুখোমুখি হয়ে তিনি রাজ্যের চিট ফান্ডগুলির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন দিগ্বিজয়। চিট ফান্ড বন্ধে সরকারের আগেই ব্যবস্থা নেওয়া উচিৎ ছিল বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। তাঁর কথায়, ``সারদার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছিল কেন্দ্র। সচিন পাইলট সারদার কথা আগেই প্রকাশ্যে এনেছিলেন।`` সেইসঙ্গে সাধারণ সম্পাদকের আরও অভিযোগ, কলকাতা ভুয়ো আর্থিক সংস্থার আখরা হয়ে উঠেছে। নীতিন গড়করির বহু সংস্থার ভুয়ো ঠিকানা রয়েছে এই শহরে।
তবে চিটফান্ড কাণ্ডে দায় এড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে। চিট ফান্ড রাজ্যের আইনে চলে না। সব চিট ফান্ডই কেন্দ্রের অধীনে। রাজ্য সরকারকে হেয় করতেই নানা বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। আজ রানি রাসমনি অ্যাভিনিউয়ে তৃণমূলের সভায় এই মন্তব্য করেন মুকুল রায়। একইসঙ্গে তাঁর দাবি, মুখ্যমন্ত্রী এবিষয়ে কড়া মনোভাব নিয়েছেন। আইনি পথেই সমস্যার মোকাবিলা করা হবে।