জোকার হাসপাতালে রোগীর মৃতদেহ খুবলে খেল ইঁদুর

ফের হাসপাতালে রোগীর মৃতদেহ খুবলে খেল ইঁদুর। এবার জোকা ই এস আই হাসপাতালে। ছয় নভেম্বর আত্মহত্যা করেন জনৈক মহম্মদ ফারুক। ই এস আই হাসপাতালের মর্গে তাঁর মৃতদেহ রাখা ছিল। মর্গে মৃতদেহ খুবলে খায় ইঁদুর। খবর ছড়িয়ে পড়তেই চরম অস্বস্তিতে পড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ঘটনার দায় স্বীকার করে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা হয়।

Updated: Nov 10, 2013, 08:30 PM IST

ফের হাসপাতালে রোগীর মৃতদেহ খুবলে খেল ইঁদুর। এবার জোকা ই এস আই হাসপাতালে। ছয় নভেম্বর আত্মহত্যা করেন জনৈক মহম্মদ ফারুক। ই এস আই হাসপাতালের মর্গে তাঁর মৃতদেহ রাখা ছিল। মর্গে মৃতদেহ খুবলে খায় ইঁদুর। খবর ছড়িয়ে পড়তেই চরম অস্বস্তিতে পড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ঘটনার দায় স্বীকার করে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা হয়।
ক মাস ধরেই রাজ্যজুড়ে বিভিন্ন হাসপাতালে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে। ক দিন আগেই এনআরএস হাসপাতালে সদ্যোজাতের মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায়। অভিযোগ উঠেছিল ওটিতে নিয়ে যাওয়ার জন্য ট্রলি পাননি ট্যাংরার বাসিন্দা শতাব্দী ঘোষ। হেঁটে ওটিতে ঢোকার সময়ই প্রসব করেন ওই প্রসূতি। মেঝেতে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হয় সদ্যোজাতের। এরপরই হাসপাতালে গাফিলতির অভিযোগে বিক্ষোভ দেখান প্রসূতির পরিবারের সদস্যেরা। পরে এন্টালি থানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন প্রসূতির পরিবার।