বাইপাসের ধারে উদ্ধার পচাগলা মৃতদেহ

বাইপাস সংলগ্ন গোয়ালবাটিতে ঘরের মেঝে খুঁড়ে উদ্ধার হল এক ব্যক্তির পচাগলা মৃতদেহ। ওই ব্যক্তির স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঘরের মেঝে খুঁড়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিস।  মৃতদেহটি ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। মৃতের এক আত্মীয়কে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিস।

Updated: Apr 25, 2013, 09:53 PM IST

বাইপাস সংলগ্ন গোয়ালবাটিতে ঘরের মেঝে খুঁড়ে উদ্ধার হল এক ব্যক্তির পচাগলা মৃতদেহ। ওই ব্যক্তির স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঘরের মেঝে খুঁড়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিস।  মৃতদেহটি ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। মৃতের এক আত্মীয়কে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিস।
বাইপাস সংলগ্ন গোয়ালবাটি এলাকায় একাই থাকতেন সত্য চক্রবর্তী। গত একমাস ধরে নিখোঁজ ছিলেন তিনি। গত তেসরা এপ্রিল সত্য চক্রবর্তীর পরিবারের তরফে সোনারপুর থানায় একটি নিখোঁজ ডায়রি করা হয়। কিন্তু খোঁজ মেলেনি সত্য চক্রবর্তীর।
 
সত্য চক্রবর্তীর স্ত্রী থাকতেন ছেলের সঙ্গে অন্য বাড়িতে। পেশায় কালীঘাটের পুরোহিত সত্য চক্রবর্তী নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই তালা বন্ধ ছিল বাড়ি। চাবি ছিল এক আত্মীয়ের কাছে। বৃহস্পতিবার আত্মীয়ের কাছ থেকে সেই চাবি নিয়ে  বন্ধ ঘর খুলতে যান তাঁর স্ত্রী।
ঘর খোলার আগেই জানলা দিয়ে দেখতে পান নতুন করে করা হয়েছে ঘরের মেঝে। সন্দেহ হওয়ায় খবর দেওয়া হয় পুলিসে। পুলিস  মেঝে খুঁড়ে সত্য চক্রবর্তীর পচাগলা মৃতদেহ উদ্ধার করে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিসের অনুমান জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরেই খুন হতে হয়েছে সত্য চক্রবর্তীকে। ঘটনায় তাঁর এক আত্মীয়কে আটক করেছে পুলিস।