ইলিয়ট পার্কের দায়িত্ব হাতে নিল পুরসভা, বদল প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর উদ্বোধন করা ফলকের

ফের বিতর্কে এলিয়ট পার্ক। রাতারাতি উধাও হয়ে গেল প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের উদ্বোধন করে যাওয়া ফলক। তার বদলে বসল নতুন ফলক।

Updated: Sep 27, 2013, 11:45 AM IST

ফের বিতর্কে এলিয়ট পার্ক। রাতারাতি উধাও হয়ে গেল প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের উদ্বোধন করে যাওয়া ফলক। তার বদলে বসল নতুন ফলক।
২০০৪ সালের ২২ নভেম্বর ইলিয়ট পার্কের উদ্বোধন করেন তত্‍কালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। সেনাবাহিনীর জমিতে গড়ে ওঠা ওই পার্কের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব দেওয়া হয় টাটা স্টিলকে। এরপর হঠাত করে গত ২ অগাস্ট কলকাতা পুরসভার মেয়র পারিষদদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় ইলিয়ট পার্কের রক্ষণাবেক্ষণ করবে পুরসভা। প্রশ্ন ওঠে দায়িত্ব নিতে গেলে যে পরিমাণ টাকার প্রয়োজন তা আসবে কোথা থেকে। ইলিয়ট পার্কের পাশেই রয়েছে মোহরকুঞ্চ। সম্প্রতি এই পার্কের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বেঙ্গল শেল্টারের সঙ্গে লিজ রিনিউ করেছে পুরসভা। পাশাপাশি দুটি পার্কের জন্য কেন পুরসভার দু`রকম নিয়ম তা জানা যায়নি? জানা যায় ইলিয়ট পার্কে প্রতি সন্ধেবেলা হাঁটতে যান  মুখ্যমন্ত্রী। একদিন মুখ্যমন্ত্রীর চোখে পড়ে পার্কের বেশ কয়েকটি আলো খারাপ। ডেকে পাঠান সিপিকে। এরপরই মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে ইলিয়ট পার্কের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব নেয় পুরসভা।

এরইমধ্যে ফের বিতর্ক বাধে। সেনাবাহিনী দাবি, এটা তাদের জমি। তাই এ ভাবে রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। এরইমধ্যে দিন কয়েক আগে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের উদ্বোধন করা সেই ফলকটা সরিয়ে নেওয়া হয়। তার জায়গায় বসেছে নতুন ফলক। যদিও এ বিষয়ে কিছুই জানেন না মেয়র। পুরসভার উদ্যান বিভাগের মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমারও জানেন না। তাহলে করলটা কে।