ফের আগুনের লেলিহান শিখা মহানগরীতে

Last Updated: Tuesday, December 20, 2011 - 01:22

অবশেষে নিয়ন্ত্রণে এল তিলজলার জুতো কারখানার আগুন। গতকাল, রাত সাড়ে দশটা নাগাদ কারখানাটির তিন ও চার তলায় আগুন লাগে। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের কুড়িটি ইঞ্জিন। দমকলকর্মীদের সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারাও আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। তবে জলের অভাবে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে অসুবিধা হয় দমকলের। সোমবার রাত সাড়ে দশটা । তিলজলার সিএন রায় রোডে বেয়াল্লিশ নম্বর বাসস্ট্যান্ডের কাছে এই জুতো কারখানায় আগুন লাগে। কারখানাটিতে প্রচুর পরিমাণে রাবার, কৃত্রিম আঠার মতো নানা দাহ্য পদার্থ মজুত থাকায় আগুন মুহুর্তের মধ্যে ভয়াবহ আকার নেয়।

রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় জাহাজ প্রতিমন্ত্রী মুকুল রায়, পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। ঘটনাস্থলে পৌঁছন কলকাতার পুলিস কমিশনার আর কে পচনন্দাও। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুলিস, দমকল আলাদা ভাবে তদন্ত করবে বলে জানিয়েছেন দমকল মন্ত্রী জাভেদ খান। ঘটনার ফরেনন্সিক তদন্তও করা হবে। যথাযথ অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা না থাকায় কারখানার বিরুদ্ধে দমকলকে এফআইআর করার নির্দেশ দিয়েছেন দমকলমন্ত্রী।

অপ্রশস্ত রাস্তায় দমকলের ইঞ্জিন ঢোকা-বেরোনো এবং জল পাওয়ার ক্ষেত্রে অসুবিধা হওয়ায় আগুন নেভাতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন দমকলকর্মীরা। উত্তাপে বাড়িটির বহু জায়গায় ফাটল দেখা দেয় । দেওয়ালের একাধিক জায়গা ভেঙে ভিতরে জল দেওয়া হয়। ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের কোনও খবর নেই।
 



First Published: Tuesday, December 20, 2011 - 15:54


comments powered by Disqus