গার্ডেনরিচ টাইমলাইন

Last Updated: Tuesday, February 12, 2013 - 14:40

গার্ডেনরিচের হরিমোহন ঘোষ কলেজের ছাত্র নির্বাচনকে ঘিরে গত কয়েকদিন ধরেই উত্তপ্ত এলাকা।
এলাকাবাসীর অভিযোগ কয়েকদিন ধরে কলেজ চত্বরেই বোম এবং আগ্নেয়াস্ত্র মজুত করছে ছাত্র পরিষদ ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদের লোকজন।
মনোনয়নপত্র জমা দিতে বাধা দেওয়ায় অভিযোগ তুলে নির্বাচন থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয় এসএফআই।
মঙ্গলবার নির্বাচনের মনোয়নপত্র জমা তোলার শেষদিন ছিল।
মঙ্গলবার ভোররাতে কলেজের সামনে একটি ক্লাব ঘর দখল করে বোমা বানাচ্ছিলেন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর রঞ্জিত শীলের ছেলে তথা টিএমিসিপির নেতা অভিজিৎ শীল।
এই সময় বোমা বিস্ফোরণে গুরুতর আহত হন অভিজিৎ সহ আরও একজন তৃণমূল কর্মী।
এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা।
এর কিছু পরেই সিপি ও টিএমসিপির লোকেরা প্রকাশ্যে বোমা ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বেরিয়ে আসে
দুই তরফের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ শুরু হয়।
পুলিসের সামনেই গুলি ও বোমা বর্ষণ শুরু হয়
গুলি লাগে কলকাতা পুলিসের স্পেশাল ব্রাঞ্চের এসআই তাপস চৌধুরীর।
হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই মারা যান গুলিবিদ্ধ পুলিস কর্মী।
এলাকার বিধায়ক তথা পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এলাকায় উপস্থিত হন।
তাঁর দাবি সিপিআইএম ও কংগ্রেসের যৌথ আক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন তৃণমূল কর্মীরা। তাঁর দাবি সকালেও অভিজিৎদের উপর আক্রমণ করেছে মোক্তার নামক কংগ্রেস কর্মীর লোকেরা।
তিনি আরও জানান তাঁদের স্থানীয় নেতা মুন্নাকে রক্ষা করতে গিয়েই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন তাপস চৌধুরী।
অভিযোগ অস্বীকার প্রদীপ ভট্টাচার্যর। জানান ঘটনাস্থলে অনুপস্থিত মোক্তার।
ফিরহাদ হাকিমের দাবি কার্যত ভিত্তিহীন প্রমাণ করে ডিসি বন্দর ডি সলোমন জানালেন সিপি ও টিএমসিপির মধ্যেই সংঘর্ষ ঘটেছে।
অন্যদিকে, কাউন্সিলারের আহত পুত্র হাসপাতালে স্বীকার করে নিলেন বোমা বাঁধতে গিয়েই আহত হয়েছে তারা।
এলাকায় র্‌যাফ নামানো হয়েছে।
গার্ডেনরিচ থানা ঘেরাও করেছেন স্থানীয় কংগ্রেস কর্মীরা।
গন্ডগোলের খবর থাকা সত্ত্বেও আগে থেকে কেন পুলিস-প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিল না তা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকার মানুষ।
এলাকার পরিস্থিতি এখনও অগ্নিগর্ভ।
খেজুরিতে সভায় নিহত পুলিসকর্মীর জন্য এক মিনিট নীরবতা পালন করলেন মুখ্যমন্ত্রী।  
গুলি চালানোর ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত শেখ সুভানকে গ্রেফতার করা হল।
সূত্রের খবর ১৫ নম্বর বরো চেয়ারম্যান, তৃণমূল কাউন্সিলর মহম্মদ ইকবাল ওরফে মুন্নার ঘনিষ্ট অভিযুক্ত শেখ সুভান।
মুন্নার লোকেরাই পুলিসের কাছ থেকে ছাড়িয়ে নেয় বলে অভিযোগ।
বেহালার বাড়িতে এল ঘটনায় মৃত পুলিস কর্মী তাপস চৌধুরীর মৃতদেহ। কান্নায় ভেঙে পড়েছেন তাপসের পরিবার-প্রতিবেশীরা।



First Published: Tuesday, February 12, 2013 - 18:51


comments powered by Disqus