জিডি বিড়লা স্কুলে রূপার ‘রাজনীতি’, গেটে মাথা ঠুকলেন বিজেপিনেত্রী

 জিডি বিড়লা স্কুলে শিশুর যৌন নিগ্রহের ঘটনায় ‘রাজনীতি’ করার অভিযোগ উঠল বিজেপিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। সোমবার সকাল থেকে স্কুলের সামনে অবস্থান করেন রূপা, বিকালে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করলেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুলিস বাধা দিলে স্কুলের গেটেই মাথা ঠুকতে শুরু করেন বিজেপিনেত্রী।

Updated: Dec 4, 2017, 07:10 PM IST
জিডি বিড়লা স্কুলে রূপার ‘রাজনীতি’, গেটে মাথা ঠুকলেন বিজেপিনেত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি:  জিডি বিড়লা স্কুলে শিশুর যৌন নিগ্রহের ঘটনায় ‘রাজনীতি’ করার অভিযোগ উঠল বিজেপিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। সোমবার সকাল থেকে স্কুলের সামনে অবস্থান করেন রূপা, বিকালে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করলেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুলিস বাধা দিলে স্কুলের গেটেই মাথা ঠুকতে শুরু করেন বিজেপিনেত্রী।

আরও পড়ুন: চাপের মুখে নতিস্বীকার এমপি বিড়লা স্কুলের, সাসপেন্ড অভিযুক্ত পিওন মনোজ

সোমবার সকালে স্কুল খোলার দাবিতে যখন বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন অভিভাবকরা, ঠিক তখনই সেখানে পৌঁছোন বিজেপিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। প্রথমে অভিভাবকদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। শিক্ষাঙ্গণে রাজনীতি চান না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন অভিভাবকরা। যদিও রাজ্যসভার সাংসদ তখন দাবি করেছিলেন, তিনি রাজনীতি করতে সেখানে আসেননি। কিন্তু বেলা গড়াতেই বদলে যায় চিত্রটা।

আরও পড়ুন: ‘সব শিক্ষক খারাপ নন, স্কুলের নিরাপত্তায় গলদ ছিল’, 'বিড়লাকাণ্ডে' বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী

বিকাল ৪টে নাগাদ স্কুলের গেট খুলে ভিতরে ঢুকতে যান রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। পুলিস বাধা দিলেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। আর তা নিয়েই শুরু হয় এক প্রস্থ ‘নাটক’। পুলিসের সঙ্গে শুরু হয় ধস্তাধস্তি। রূপার অনুগামীরাও বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।  কিন্তু তাতেও কাজ না হলে, স্কুলের গেটেই মাথা ঠুকতে থাকেন তিনি। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলে এই ‘নাটক’। পরে একপ্রকার বাধ্য হয়েই নিজের অবস্থান থেকে সরে আসতে বাধ্য হন রূপা।

স্কুলের গেটের বাইরে দাঁড়িয়েও তিনি বলেন, ‘’আমি রাজনীতি করতে আসেনি। একজন মা হিসাবেই স্কুলে এসেছিলাম। স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলাম। আমাকে ঢুকতে দেওয়া হল না। যখন বেরিয়ে আসব বলছিলাম, তখনও দরজায় চেপে দেওয়া হয়েছিল আমাকে।‘’

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close