প্যারাটিচারদের প্রশিক্ষণের দায়িত্ব রাজ্যেরই, হাইকোর্টের রায়

Last Updated: Wednesday, January 16, 2013 - 21:34

প্যারাটিচারদের প্রশিক্ষণের দায়িত্ব নিতে হবে রাজ্য সরকারকেই। রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট। প্যারাটিচারদের দায়ের করা এক মামলার শুনানির সময় হাইকোর্ট বলে, শিক্ষা অধিকার আইন অনুযায়ী প্যারাটিচারদেরও প্রশিক্ষণ প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে, প্রশিক্ষণের দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে। রাজ্যে এই মুহূর্তে প্যারাটিচারের সংখ্যা প্রায় ৫৫ হাজার।
শিক্ষার অধিকার আইন বলছে, প্রশিক্ষণ ও নির্দিষ্ট যোগ্যতা না থাকলে দু হাজার পনেরো সালের পর কেউই শিক্ষকতা করতে পারবেন না। সেই অনুযায়ী, ইতিমধ্যেই কর্মরত স্থায়ী প্রাথমিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে সরকার। কিন্তু, প্যারাটিচারদের অভিযোগ, তাঁদের প্রশিক্ষণের কোনও ব্যবস্থাই হচ্ছে না। প্রশিক্ষণের আর্জি জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করেন প্যারাটিচাররা। 
বুধবার এই মামলার শুনানির সময় বিচারপতি বলেন, প্যারাটিচারদেরও প্রশিক্ষণের দরকার। সেক্ষেত্রে ইচ্ছুক প্যারাটিচারদের প্রশিক্ষণের দায়িত্ব নিতে হবে রাজ্য সরকারকে। ২০১৫ সালের মধ্যে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে। কারণ, কেন্দ্রীয় নিয়মে সম্প্রতি বলা হয়েছে, নির্দিষ্ট যোগ্যতা যাদের থাকবে না তারা দু হাজার পনেরো সালের মার্চ মাসের পর থেকে আর শিক্ষকতার সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারবেন না। ফলে  শুধু স্থায়ী শিক্ষক নয়, প্যারাটিচার বা পার্শ্ব শিক্ষকদেরও প্রশিক্ষণের দায় এল রাজ্য সরকারের কাঁধে।



First Published: Wednesday, January 16, 2013 - 21:34


comments powered by Disqus