টেট মামলায় ফের রায়দান স্থগিত রাখল হাইকোর্ট

টেট মামলায় ফের রায়দান স্থগিত রাখল হাইকোর্ট। ২০০৯ সালের পরে ৪৩৭টি টেট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের বেশিরভাগই স্বীকৃতিহীন ছিল বলে আদালতকে জানাল রাজ্য সরকার। ২০০১ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলির স্বীকৃতি থাকলেও পরে স্বীকৃতিতে ছেদ পড়ে। বিচারপতি কারনান প্রশ্ন তোলেন তাহলে ২০০৯-র পর থেকে রাজ্যসরকার এই স্বীকৃতিহীন প্রতিষ্ঠানগুলির বিরুদ্ধে আইনত কী ব্যবস্থা নিয়েছে?

Updated: Aug 31, 2016, 03:41 PM IST
টেট মামলায় ফের রায়দান স্থগিত রাখল হাইকোর্ট

ওয়েব ডেস্ক: টেট মামলায় ফের রায়দান স্থগিত রাখল হাইকোর্ট। ২০০৯ সালের পরে ৪৩৭টি টেট প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের বেশিরভাগই স্বীকৃতিহীন ছিল বলে আদালতকে জানাল রাজ্য সরকার। ২০০১ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলির স্বীকৃতি থাকলেও পরে স্বীকৃতিতে ছেদ পড়ে। বিচারপতি কারনান প্রশ্ন তোলেন তাহলে ২০০৯-র পর থেকে রাজ্যসরকার এই স্বীকৃতিহীন প্রতিষ্ঠানগুলির বিরুদ্ধে আইনত কী ব্যবস্থা নিয়েছে?

সরকারি আইনজীবী জানান যে যেহেতু অধিকাংশই স্বীকৃতিহীন প্রতিষ্ঠান তাই দুহাজার পনের সালে টেট পরীক্ষার সময় হাতে পর্যাপ্ত প্রশিক্ষিত প্রার্থী ছিলেন না। কিন্তু এখন রাজ্য সরকার অনুমোদিত স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান আছে। ২০১৭-র মধ্যে শিক্ষিত হবেন পর্যাপ্ত সংখ্যক প্রার্থী। যদিও মামলাকারীর আইনজীবীরা এর তীব্র বিরোধিতা করেন। রায়দান আপাতত স্থগিত রাখেন বিচারপতি।