জলহস্তির মৃত্যু আলিপুর চিড়িয়াখানায়

আলিপুর চিড়িয়াখানায় মৃত্যু হল এক জলহস্তির। আজ সকালে চিড়িয়াখানার জলাশয়ে মৃত অবস্থায় ভাসতে দেখা যায় পাপ্পি নামের স্ত্রী জলহস্তিটিকে। ইনটেসটিনাল ইনট্যাকশন বা অন্ত্রে খাবার আটকে ও তা থেকে সংক্রমণের জেরেই পাপ্পির মৃত্যু হয়েছে বলে ময়না তদন্তে জানা গেছে।একইসঙ্গে, চিড়িয়াখানার জলাশয়ের সংস্কারের দাবিও তুলেছে কর্মী সংগঠনের একাংশ। 

Updated: Aug 28, 2013, 10:54 PM IST

আলিপুর চিড়িয়াখানায় মৃত্যু হল এক জলহস্তির। আজ সকালে চিড়িয়াখানার জলাশয়ে মৃত অবস্থায় ভাসতে দেখা যায় পাপ্পি নামের স্ত্রী জলহস্তিটিকে। ইনটেসটিনাল ইনট্যাকশন বা অন্ত্রে খাবার আটকে ও তা থেকে সংক্রমণের জেরেই পাপ্পির মৃত্যু হয়েছে বলে ময়না তদন্তে জানা গেছে।একইসঙ্গে, চিড়িয়াখানার জলাশয়ের সংস্কারের দাবিও তুলেছে কর্মী সংগঠনের একাংশ। 
বয়স হয়েছিল, ইদানিং শরীরটাও তেমন ভালো যাচ্ছিল না। খাওয়া দাওয়াও কমে গিয়েছিল অনেকটাই। বুধবার সকালে থেমে গেল সাতাশ বছরের পথচলা। আলিপুর চিড়িয়াখানায় মৃত্যু হল স্ত্রী জলহস্তি পাপ্পির।
 
১৯৮৬-তে জন্ম। ২০০৫-এ মুম্বই চিড়িয়াখানা থেকে আনা হয়েছিল পাপ্পিকে। তারপর থেকে আলিপুরই ছিল ঠিকানা। এখানেই জন্ম পাপ্পির একমাত্র সন্তানেরও।  
 
ময়না তদন্তের রিপোর্ট বলছে, ইনটেসটিন্যাল ইনট্যাকশন বা অন্ত্রে খাবার আটকে  তার থেকে সংক্রমণের জেরেই মৃত্যু হয়েছে স্ত্রী জলহস্তিটির।  পাপ্পির মৃত্যুর পর এখন চিড়িয়াখানায় জলহস্তির সংখ্যার কমে দাঁড়াল তিনে। রয়ে গেল পাপ্পির সঙ্গী ও একমাত্র সন্তান।