ভবানীপুরে দিনে দুপুরে দুস্কৃতী হামলার শিকার দোকানী

ভবানীপুর থানার প্রায় লাগোয়া সোনার দোকান। দিনেদুপুরে সেখানেই হামলা চালাল সশস্ত্র দুষ্কৃতী। ক্যাটলগ দেখার সুযোগ নিয়ে ওই দুষ্কৃতী অতর্কিতে হামলা চালায় দোকানমালিকের ওপর। বার বার ধারাল অস্ত্রের আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন দোকানমালিক। পরে অবশ্য পালিয়ে যেতে সমর্থ হয় সে। ভবানীপুর থানার এত কাছে, দিনেদুপুরে দুষ্কৃতী-হামলার এই ঘটনায় আতঙ্কিত দোকানমালিকেরা।

Updated: Mar 23, 2013, 08:16 PM IST

ভবানীপুর থানার প্রায় লাগোয়া সোনার দোকান। দিনেদুপুরে সেখানেই হামলা চালাল সশস্ত্র দুষ্কৃতী। ক্যাটলগ দেখার সুযোগ নিয়ে ওই দুষ্কৃতী অতর্কিতে হামলা চালায় দোকানমালিকের ওপর। বার বার ধারাল অস্ত্রের আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন দোকানমালিক। পরে অবশ্য পালিয়ে যেতে সমর্থ হয় সে। ভবানীপুর থানার এত কাছে, দিনেদুপুরে দুষ্কৃতী-হামলার এই ঘটনায় আতঙ্কিত দোকানমালিকেরা।
শনিবার দুপুরের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে ভবানীপুর থানা এলাকায়। দুপুর পৌনে একটায়  এই সোনার দোকানেই হামলা চালায় এক যুবক। খদ্দের পরিচয় দিয়ে এসেছিল সে। দোকান মালিক, গৌরচন্দ্র দে তাঁকে ক্যাটালগ দেখতে দিয়ে অন্য কাজে ব্যস্ত ছিলেন। অভিযোগ, তখনই তাঁর মাথায় হাঁসুয়ার কোপ বসিয়ে দেয় অভিযুক্ত যুবক। হতভম্ব মালিক কিছু বুঝে ওঠার আগেই, ফের একবার হাঁসুয়া চালিয়ে দেয় অভিযুক্ত যুবক।
চিত্‍কার শুনে দোকান মালিকের ছেলে ছুটে এলে হাঁসুয়া ফেলেই চম্পট দেয় অভিযুক্ত। গুরুতর আহত দোকান মালিককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দিনেদুপুরে এই ঘটনা ঘটায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়।
আপাতত সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অভিযুক্তকে শনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ডাকাতির উদ্দেশ্যেই সে দোকানে এসেছিল বলে ধারনা পুলিসের।