কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ার অপরাধে চলন্ত ট্রেন থেকে মহিলাকে ধাক্কা স্বামীর, প্রতিবেশীদের প্রহারে জখম স্বামীর প্রেমিকা

Last Updated: Friday, December 27, 2013 - 10:20

কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ার অপরাধে দীর্ঘদিন ধরে স্বামীর অত্যাচারের শিকার। তার উপরে স্বামীর অবৈধ সম্পর্কের যন্ত্রণা। উত্তর কলকাতার গোয়াবাগানের অর্পিতা মান্না শেষ হয়ে গেলেন অকালমৃত্যুতে। তাঁর পরিবারের অভিযোগ, স্বামী দেবাশিস মান্নাই খুন করেছেন অর্পিতাকে। অর্পিতার মৃত্যুর খবর জানাজানি হতেই গত কাল রাতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন এলাকার লোকজন। দেবাশিস পলাতক। তাঁর বাবাকে গ্রেফতার করেছে পুলিস।

এগারো বছরের বৈবাহিক সম্পর্ক ছিল উত্তর কলকাতার গোয়াবাগানের দেবাশিস মান্না এবং অর্পিতা মান্নার। তিন কন্যা সন্তানের জন্ম দেওয়ার অপরাধে দীর্ঘ দিন ধরেই স্বামীর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচারের শিকার হচ্ছিলেন অর্পিতা। সেই সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল দেবাশিসের গত দু`বছরের অবৈধ সম্পর্ক। পাশের বাড়ির বাতাসী পোড়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল দেবাশিসের। অর্পিতার বাড়ির লোকের অভিযোগ, এই সব কারণেই বৃহস্পতিবার উত্তরপাড়া রেল স্টেশনের কাছে অর্পিতাকে চলন্ত ট্রেন থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে খুন করেন দেবাশিস। শুধু অর্পিতার পরিবারের লোকজনই নন, তাঁদের প্রতিবেশী, এমনকী এলাকার কাউন্সিলরও দেবাশিসের কুকীর্তির কথা জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটা নাগাদ উত্তরপাড়া জিআরপির মাধ্যমে অর্পিতার মৃত্যুর খবর পৌঁছনোর পরেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এলাকার লোকজন। রীতিমতো মারধর করা হয় বাতাসী পোড়েলকে। ঘটনাস্থলে পৌছে বাতাসীকে উদ্ধার করে পুলিস। গ্রেফতার করা হয় দেবাশিসবাবুর বাবাকে।



First Published: Friday, December 27, 2013 - 10:20


comments powered by Disqus