কলকাতাতেও থাবা জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের, মৃত কলকাতা পুলিসের কর্মী

কলকাতায়  জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের থাবা। এই প্রথম জাপানি এনসেফ্যালাইটিসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল কলকাতা পুলিসের এক কর্মীর।আলিপুর বডিগার্ড  লাইনের ওই  বাসিন্দার নাম মহম্মদ এহসান আলি। গত শনিবারই তাঁর রক্তে জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের জীবাণু পাওয়া গিয়েছিল।

Updated: Aug 30, 2014, 09:30 AM IST
কলকাতাতেও থাবা জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের, মৃত কলকাতা পুলিসের কর্মী

কলকাতা: কলকাতায়  জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের থাবা। এই প্রথম জাপানি এনসেফ্যালাইটিসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল কলকাতা পুলিসের এক কর্মীর।আলিপুর বডিগার্ড  লাইনের ওই  বাসিন্দার নাম মহম্মদ এহসান আলি। গত শনিবারই তাঁর রক্তে জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের জীবাণু পাওয়া গিয়েছিল।

কিন্তু নিশ্চিত হতে আরও একবার তাঁর রক্ত পরীক্ষা করে দেখেন চিকিত্সকেরা। বুধবার পাওয়া সেই রিপোর্টেও দেখা যায়, এহসান আলি জাপানি এনসেফ্যালাইটিসেই আক্রান্ত। ভেন্টেলেশনে রাখা হয়েছিল ওই পুলিস কর্মীকে।

আলিপুর বডিগার্ড লাইনের বাসিন্দা মহম্মদ এহসান হাসান কয়েকদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন। আজ তাঁর রক্তের নমুনা পরীক্ষায় জাপানি এনসেফ্যালাইটিস জীবানু মিলেছে।বছর পঞ্চান্নর মহম্মদ এসহান হাসান। গড়ফা থানার  এই পুলিস কর্মী  দীর্ঘদিন ধরে আলিপুর পুলিস বডিগার্ড লাইনের আবাসনের বাসিন্দা। গতবছর সেরিব্রাল স্ট্রোকের পর থেকে বাড়িতেই থাকতেন।

এমাসের বারোতারিখ থেকে হঠাত্ জ্বর ও শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তাঁর। পরিবারের লোকজন তাঁকে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রাথমিক বেশকিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার পরও জ্বরের কারণ বুঝতে পারেননি চিকিত্সকরা। রক্তপরীক্ষায় জাপানি এনসেফ্যালাইটিসের সন্ধান মেলে। নিশ্চিন্ত হতে  এহসানের রক্তের নমুনা পাঠানো হয়  স্কুল অফ ট্রপিকাল মেডিসিনে।  মঙ্গবার রিপোর্ট এলে জানা যায় এহসান  জাপানি এনসেফ্যালাইটিসে আক্রান্ত ।

পুলিস আবাসনের পরিবেশ নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন এহসানের পরিবার। খাস সরকারি আবাসনের ভিতরই জাপানি এনসেফ্যালাইটিস ধরা পড়ায় আতঙ্কিত এলাকার মানুষ।