মেধার ভিত্তিতেই আসন পূরণ, সর্বোচ্চ আদালতের জয়ী যাদবপুর

Last Updated: Tuesday, January 8, 2013 - 10:24

ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ভর্তিতে ফাঁকা আসন পূরণ করতে হবে মেধার ভিত্তিতেই। কাউকে বিশেষ সুবিধা দেওয়া যাবে না। সোমবার এই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আবেদনের ভিত্তিতে এই নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত। এব্যাপারে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট।
ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ফাঁকা আসনে ছাত্র ভর্তি নিয়ে কয়েক মাস ধরেই বিতর্ক চলছে রাজ্যের শিক্ষা মহলে। অরিন্দম দত্ত নামে এক ছাত্র ই-কাউন্সিলিংয়ে পছন্দের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না পেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন। তিনি জানান, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশ কিছু বিভাগে ফাঁকা আসন রয়েছে। সেখানেই পছন্দের বিভাগে তাঁকে ভর্তির ব্যবস্থা করা হোক। হাইকোর্ট ওই ছাত্রকে যাদবপুর বা শিবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করার নির্দেশ দেয়। হাইকোর্টের এই নির্দেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিমকোর্টে যায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। সোমবার হাইকোর্টের ওই নির্দেশ খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট। সর্বোচ্চ আদালত স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, মেধার ভিত্তিতেই ফাঁকা আসনে ভর্তি করতে হবে। কোনও ছাত্রের আবেদনের ভিত্তিতে ভর্তির বিশেষ সুবিধা দেওয়া যাবে না। কারণ ওই ছাত্রের র‍্যাঙ্কে আরও অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী থাকতে পারেন। সেক্ষেত্রে তাঁরা কোনও সুযোগ পাচ্ছেন না।
রাজ্য সরকারও একবার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ফাঁকা আসনে আবেদনের ভিত্তিতে ছাত্র ভর্তির চেষ্টা করেছিল। কিন্তু পদ্ধতি মেনে নিতে রাজি হয়নি যাদবপুর ও শিবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। রাজ্যের শিক্ষামহলেও বিতর্কের ঝড় ওঠে। অবশেষে এই পদ্ধতিতে ফাঁকা আসন পূরণ থেকে বিরত থাকে রাজ্য সরকার। যাদবপুর ও শিবপুর বিশ্ববিদ্যালয় যে কারণগুলি দেখিয়ে আপত্তি তুলেছিল, প্রায় সেই একই কারণে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশকে খারিজ করে দিয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত।



First Published: Tuesday, January 8, 2013 - 10:24


comments powered by Disqus