সততা বিতর্কে বুদ্ধদেবকে আক্রমণ কল্যাণের

Last Updated: Sunday, February 10, 2013 - 09:05

মুখ্যমন্ত্রীর সততা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তাতে কি খানিকটা ব্যাকফুটে তৃণমূল কংগ্রেস? প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যক্তিগত আক্রমণের পাশাপাশি, বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীর দুই ভাইকেও আড়াল করতে চেয়ে তেমনই ইঙ্গিত দিলেন তৃণমূলের আইনজীবী সাংসদ কল্যাণ ব্যানার্জি।
পাঁচই ফেব্রুয়ারি। চব্বিশ ঘণ্টায় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর সাক্ষাত্কারে মুখ্যমন্ত্রীর সততা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। এই মন্তব্যকে ঘিরে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। ছয়ই ফেব্রুয়ারি জবাব দিতে গিয়ে যুক্তির পথে না হেঁটে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করলেন পুরমন্ত্রী। ছ তারিখেই মুকুল রায়ের তরফে আইনজীবী চিঠি পাঠালেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে। আটচল্লিশ ঘণ্টার মধ্যে তথ্যপ্রমাণ না দিলে মানহানির মামলা করার হুমকি। পরের দিনই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর আইনজীবী আইনি জবাব দিলেন। লিখলেন, কোনও মানহানিকর মন্তব্য করেননি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।
আটচল্লিশ ঘণ্টা অতিক্রান্ত। মানহানির মামলা দায়ের হয়নি। তবে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যক্তিগত আক্রমণ অব্যাহত।তৃণমূল সাসংদের দাবি, পরিশ্রম করে বড় হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বড় হয়েছেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। যাঁরা বলছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসত, তাঁরা অন্যায় বলছেন।
মুখ্যমন্ত্রীর দুই ভাইয়ের পক্ষেও সওয়াল করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের আইনজীবী সাংসদ কল্যাণ ব্যানার্জী। মন্তব্য করলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য্যের কন্যা সুচেতনাকে নিয়েও।
ঘটনাপ্রবাহ বলছে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য নিয়ে জল অনেকদূর গড়াবে। কারণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সততাই যে তৃণমূল কংগ্রেসের ইউএসপি।



First Published: Sunday, February 10, 2013 - 09:05


comments powered by Disqus