ধর্ষণ মমলার দ্রুত নিষ্পত্তিতে উদ্যোগী হাইকোর্ট

দিল্লির ঘটনার পর নারী নির্যাতনের মামলার দ্রুত নিস্পত্তির দাবি উঠেছিল দেশ জুড়ে। তার পরেও পরিস্থিতির খুব একটা বদল ঘটেনি। একই চিত্র এ রাজ্যেও। তাই শেষ পর্যস্ত ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য উদ্যোগী হলেন খোদ কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অরুণ মিশ্র।

Updated: Jan 18, 2013, 10:34 AM IST

দিল্লির ঘটনার পর নারী নির্যাতনের মামলার দ্রুত নিস্পত্তির দাবি উঠেছিল দেশ জুড়ে। তার পরেও পরিস্থিতির খুব একটা বদল ঘটেনি। একই চিত্র এ রাজ্যেও। তাই শেষ পর্যস্ত ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য উদ্যোগী হলেন খোদ কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অরুণ মিশ্র।
নজিরবিহীন ভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের মামলার দ্রুত নিষ্পত্তিরর জন্য রাজ্যকে উদ্যোগী হতে বললেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অরুণ মিশ্র। ধর্ষণ এবং নারী নির্যাতনের প্রচুর মামলা জমে রয়েছে তার নিষ্পত্তির জন্যই এই উদ্যোগ। সেই কারণেই রাজ্যকে আরও স্থায়ী ফাস্ট ট্রাক কোর্ট গঠন করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।
শুধু তাই নয় প্রত্যেকটি জেলা এবং মহকুমায় ধর্ষণ এবং নারী নির্যাতনের মামলার শুনানির জন্য এক বা একাধিক আদালতকে নির্দিষ্ট করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বিচারপতি অরুণ মিশ্র চার মাসের মধ্যই সব ধর্ষণের মামলার নিষ্পতির নির্দেশ দিয়েছেন। বাস্তবিক অবস্থা বিচার করে এই আদালতগুলিতে মহিলা বিচারক এবং মহিলা কর্মী নিয়োগ করার কথাও বলেছেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধানবিচারপতি অরুণ মিশ্র।
পার্কস্ট্রিট এবং কাটোয়ায় ধর্ষণের ঘটনা অস্বীকার করেছিল রাজ্য সরকার। ফলে পুলিসি তদন্তেও তার প্রভাব পড়ে। দুটি ঘটনাতেই এখনও চার্জ ফ্রেম করে উঠতে পারেনি পুলিস। এই অবস্থায় কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির এই নির্দেশ রাজ্যের কাছে যথেষ্টই অস্বস্তিকর।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close