২৪ ঘণ্টার খবরের জের, তেল চুরির ঘটনায় নড়েচড়ে বসল পুর কর্তৃপক্ষ

Last Updated: Saturday, November 30, 2013 - 21:48

২৪ ঘণ্টার খবরের জের। তেলচুরির ঘটনায় অডিট রিপোর্ট সামনে আসার পর নড়েচড়ে বসল পুর কর্তৃপক্ষ। গাড়ির ব্যবহারে চালু হচ্ছে নয়া নিয়ম। ম্যানেজার এবং তার ওপরের স্তরের আধিকারিকেরাই এবার থেকে গাড়ি ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। প্রয়োজনে অফিসারদের ক্ষেত্রেও পুলকার ব্যবস্থা চালু হতে পারে কলকাতা পুরসভায়কলকাতা পুরসভার দুহাজার বারো তেরো সালের ইন্টারনাল অডিটে সামনে এসেছে গাড়ির জ্বালানি খাতে কয়েক কোটি টাকা নয়ছয়ের হিসেব। নথি খতিয়ে দেখতে গিয়ে কর্পোরেশনের সেন্ট্রাল গ্যারেজের নথিতে মিলেছে বিস্তর অসঙ্গতি। তার জেরেই শুক্রবার সার্কুলার জারি করেন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ।

সেই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, প্রতিটি দফতরে কতগুলি ভাড়া করা গাড়ি ব্যবহার করা হচ্ছে, তার হিসাব দিতে হবে কন্ট্রোলিং অফিসারকে। একইসঙ্গে ভাড়া গাড়ির সংখ্যা কীভাবে কমানো যায় সেই প্রস্তাবও দিতে হবে।

একই এলাকা থেকে যে সব বিভাগীয় প্রধান এবং ম্যানেজার অফিসে আসেন, তাদের জন্য আলাদা আলাদা গাড়ি না দিয়ে পুলকার ব্যবহার করা যায় কিনা সেই সম্ভাবনাও খতিয়ে দেখতে হবে।

বিভাগীয় প্রধান কিংবা ম্যানেজার স্তরের নিচের যেসব অফিসার ভাড়ার গাড়ি ব্যবহার করছেন, তাঁরা আর পুরসভার গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন না।

এপর্যন্ত পুরসভার অফিসারদের জন্য ৫৭৬টি গাড়ি ব্যবহার করা হত। ব্যবহৃত গাড়ির সংখ্যা না কমালে যথেচ্ছ তেল ব্যবহারে যে রাশ টানা যাবে না তা বুঝেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে। গোড়ায় মেয়র জানিয়েছিলেন, প্রশাসনে স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে ইন্টারনাল অডিট তাঁরাই করিয়েছিলেন । কিন্তু পুরসভার এই সার্কুলার থেকে স্পষ্ট, তেলচুরি কাণ্ডে অস্বস্তিতে পড়েই এই সিদ্ধান্ত নিতে হল পুর কর্তৃপক্ষকে।



First Published: Saturday, November 30, 2013 - 21:48


comments powered by Disqus