জমি নিয়ে বিবাদের জেরে দুষ্কৃতী হামলা

জমি নিয়ে বিবাদের জেরে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুষ্কৃতী হামলা। পাঁচ লাখ টাকা তোলা চেয়ে হুমকি। গভীর রাতে সমাজবিরোধীদের দৌরাত্ম্যের সেই সিসিটিভি ফুটেজ ২৪ ঘণ্টার হাতে। ঘটনা, বেহালার এস এন চ্যাটার্জি রোড এলাকায়।

Updated: Apr 7, 2013, 01:52 PM IST

জমি নিয়ে বিবাদের জেরে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুষ্কৃতী হামলা। পাঁচ লাখ টাকা তোলা চেয়ে হুমকি। গভীর রাতে সমাজবিরোধীদের দৌরাত্ম্যের সেই সিসিটিভি ফুটেজ ২৪ ঘণ্টার হাতে। ঘটনা, বেহালার এস এন চ্যাটার্জি রোড এলাকায়।
মাসখানেক আগে প্রোমোটিং সংস্থার থেকে জমি কেনেন গাড়ি ব্যবসায়ী অনিল আগরওয়াল। জমিতে গ্যারাজ তৈরির পরিকল্পনা ছিল তাঁর। কিন্তু, নির্মাণ কাজ শুরু করতে গেলেই বাধে বিপত্তি। এলাকার কিছু তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী ওই ব্যবসায়ীর কাছে পাঁচ লাখ টাকা তোলা দাবি করে বলে অভিযোগ।
টাকা না দেওয়ায় চলতে থাকে লাগাতার হুমকি। বেহালা থানায় ডায়রি করেও লাভ হয়নি বলে জানিয়েছেন অনিল আগরওয়াল। সমস্যা গুরুতর আকার নেয় গত ২২ মার্চ রাতে। কুড়ি-পঁচিশ জনের একটি দল হামলা চালায় তাঁর বাড়ি ও নির্মীয়মান গ্যারাজে। ভাঙচুর করা হয় গাড়ি ও গ্যারাজের পাঁচিল। গ্যারাজে হামলার গোটা ঘটনাটাই ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরায় ধরা পড়ে। আর সেই ছবিই এসে পৌঁছেছে ২৪ ঘণ্টার হাতে।  
বাইশে মার্চের হামলার পর চরম আতঙ্কে দিন কাটছে ব্যবসায়ী অনিল আগরওয়াল ও তাঁর পরিবারের। দুষ্কৃতীদের হুমকির জেরে কার্যত ঘরবন্দি অবস্থায় রয়েছেন তাঁরা। এলাকার সক্রিয় তৃণমূল কর্মী গোবিন্দলাল সরকারের নেতৃত্বে বাইশে মার্চ হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। পুলিস গোবিন্দলাল সরকারকে গ্রেফতার করলেও তিনি ছাড়া পেয়ে যান। গোবিন্দলালের সঙ্গী কাশেম, রাজেশ, শাহজাহান, গণেশ ও রমেশ সহ বাকিদের বিরুদ্ধেও বেহালা থানায় এফআইআর দায়ের করেন অনিল আগরওয়াল। যদিও, কেউই গ্রেফতার হননি। দুষ্কৃতীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ানোয় আতঙ্কে দিশেহারা আগরওয়াল পরিবার।