লোকসভা ভোটে কংগ্রেস ও বিজেপি দুদলের বিরুদ্ধেই লড়বে বামেরা, সংহতি দিবসে বিজেপি সম্পর্কে নিরব মুখ্যমন্ত্রী

West Bengal former chief minister Budhadeb bhattacharjya made it clear that his party will fight against Cong-BJP in up coming general election. while Trinamool supremo remains mum on Babari masjid issue on Samhati dibash.

Updated: Dec 6, 2013, 11:30 PM IST

বিজেপি সম্পর্কে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নীরবতাই আসলে দু`দলের গোপন বোঝাপড়া। সংহতি দিবসে বিজেপি সম্পর্কে তৃণমূলনেত্রীর নীরবতাকে এভাবেই ব্যাখ্যা করলেন বাম নেতারা। একই সঙ্গে শহিদ মিনারের সমাবেশ থেকে প্রকাশ কারাট-বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যরা বুঝিয়ে দিলেন লোকসভা ভোটে কংগ্রেস ও বিজেপি দুদলের বিরুদ্ধেই লড়াই চালাবেন তাঁরা। ৬ ডিসেম্বর। একুশ বছর আগে এ দিনেই ধ্বংস হয়েছিল বাবরি মসজিদ। শুক্রবার সেই দিনের স্মরণে সংহতি দিবসের ডাক দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দাঙ্গার বিরোধিতা করলেও বিজেপি সম্পর্কে কিন্তু নীরবই থাকলেন তৃণমূল নেত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই নীরবতাই আসলে বিজেপির সঙ্গে ভবিষ্যতের জোটের দরজা খুলে রাখার ইঙ্গিত। শহিদ মিনারে সমাবেশে দাঁড়িয়ে এমনই অভিযোগ করলেন প্রকাশ কারাত, বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যরা।

আরও একধাপ এগিয়ে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের অভিযোগ, আসলে বিজেপির সঙ্গেই হাত মিলিয়ে চলছে তৃণমূল। প্রকাশ কারাট বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ছাড়াও শহিদ মিনারে বামফ্রন্টের ডাকা সমাবেশে ছিলেন এবি বর্ধন, দেবব্রত বিশ্বাস, বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্র সহ বামফ্রন্টের প্রায় সমস্ত শীর্ষ নেতারাই।

লোকসভা নির্বাচনে তাঁরা যে কংগ্রেস এবং বিজেপির সঙ্গে সমদূরত্ব বজায় রেখে চলবেন তাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন বাম নেতৃত্ব। শুধু কংগ্রেস বা বিজেপিই নয়, তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধেও একের পর এক তোপ দেগেছেন বাম নেতারা।