ধর্মঘট নিয়ে পরিবহণমন্ত্রীর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ পরিবহণ মালিকরা

ধর্মঘট না করার ব্যাপারে মুচলেকা দেওয়া নিয়ে পরিবহণমন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করলেন পরিবহণ মালিকরা। তাঁদের দাবি, মন্ত্রীর এই মন্তব্য সংবিধান বর্ণিত গনতান্ত্রিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করে। ধর্মঘটে অংশ নেওয়া যাবে না, এই মর্মে মুচলেকা দিলে তবেই মিলবে বাস, ট্যাক্সি ও অটোর নতুন পারমিট। বুধবার মহাকরণে এমনটাই জানিয়েছেন মন্ত্রী। পাশাপাশি পুরনো পারমিট নবীকরণের ক্ষেত্রেও এই একই শর্ত থাকবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Updated: Nov 22, 2012, 09:12 AM IST

ধর্মঘট না করার ব্যাপারে মুচলেকা দেওয়া নিয়ে পরিবহণমন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করলেন পরিবহণ মালিকরা। তাদের দাবি, মন্ত্রীর এই মন্তব্য সংবিধান বর্ণিত গনতান্ত্রিক অধিকারে হস্তক্ষেপ করে। ধর্মঘটে অংশ নেওয়া যাবে না, এই মর্মে মুচলেকা দিলে তবেই মিলবে বাস, ট্যাক্সি ও অটোর নতুন পারমিট। বুধবার মহাকরণে এমনটাই জানিয়েছেন মন্ত্রী। পাশাপাশি পুরনো পারমিট নবীকরণের ক্ষেত্রেও এই একই শর্ত থাকবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
রাজ্য সরকারের এই ফতোয়ার জেরে ইতিমধ্যেই ক্ষোভে ফুঁসছেন বাস-মিনিবাস-ট্যাক্সি সহ সমস্ত বেসরকারি পরিবহণের মালিক ও কর্মী সংগঠন।
বাস মালিকরা যখন গণতান্ত্রিক অধিকার বাঁচাতে আদালতের দ্বারস্থ হবার কথা ভাবছেন, তখন আরও একধাপ এগিয়ে নয়া ফরমান জারির দিনই ধর্মঘট ডেকে সরকারকে বার্তা দেবার হুমকি দিয়েছে ট্যাক্সি সংগঠনগুলি।