মাধ্যমিকে ইংরাজীতে অন্যভাবে লিখলে তবেই নম্বর, পর্ষদের নির্দেশিকায় বিভ্রান্তি-বিতর্ক

খোদ পর্ষদের বইয়ে যেভাবে উত্তর দেওয়া হয়েছে সেভাবে উত্তর লিখলে চলবে না। অন্যভাবে উত্তর লিখলে তবেই নম্বর। মাধ্যমিকের ইংরাজীর একটি প্রশ্নের উত্তর হিসেবে পরীক্ষকদের কাছে এমনই নির্দেশিকা পাঠিয়েছে পর্ষদ। আর সেই নির্দেশ ঘিরেই তৈরি হয়েছে বিভ্রান্তি। কেন বইয়ের নিয়মে উত্তর দিলে নম্বর পাওয়া যাবে না উঠছে সেই প্রশ্ন।

Updated: Mar 12, 2014, 04:25 PM IST

খোদ পর্ষদের বইয়ে যেভাবে উত্তর দেওয়া হয়েছে সেভাবে উত্তর লিখলে চলবে না। অন্যভাবে উত্তর লিখলে তবেই নম্বর। মাধ্যমিকের ইংরাজীর একটি প্রশ্নের উত্তর হিসেবে পরীক্ষকদের কাছে এমনই নির্দেশিকা পাঠিয়েছে পর্ষদ। আর সেই নির্দেশ ঘিরেই তৈরি হয়েছে বিভ্রান্তি। কেন বইয়ের নিয়মে উত্তর দিলে নম্বর পাওয়া যাবে না উঠছে সেই প্রশ্ন।

এবছর যারা মাধ্যমিকের ইংরাজী পরীক্ষায় বসেছেন তাদের পাঠ্য বই ছিল পর্ষদের লার্নিং ইলিশ। বইয়ে বাচ্য পরিবর্তন সংক্রান্ত যে অধ্যায় রয়েছে সেখানে নির্দিষ্ট কতগুলি উদাহরণের মাধ্যমে শেখানো হয়েছে কোন ধরনের বাক্য বাচ্য পরিবর্তন করে কি ধরেনর বাক্যে পরিণত হয়। অনুরোধসূচক বাক্য কিভাবে পরিবর্তন করতে হয়, তাও নির্দিষ্ট উদাহরণের মাধ্যমে দেখানো হয়েছে। এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাঁচ নম্বরের অন্তর্গত দু নম্বর প্রশ্নে ছাত্রছাত্রীদের অনুরোধসূচক একটি বাক্য পরিবর্তন করতে বলা হয়েছে। খা

তা দেখা নিয়ে ইতিমধ্যেই পরীক্ষকদের কাছে নির্দিষ্ট নির্দেশনামা পাঠিয়েছে পর্ষদ। কিন্তু মজার বিষয় হচ্ছে বইয়ে যেভাবে উদাহরণ দিয়ে এই ধরনের বাক্য পরিবর্তন ছাত্রছাত্রীদের শেখানো হয়েছে নির্দেশিকায় সম্পুর্ণ অন্যভাবে বাক্যটি পরিবর্তন করলে তবেই নম্বর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। ফলে বইয় শেখানো নিয়ম অনুযায়ী বাক্যটি যারা পরিবর্তন করেছেন তাদের কোনও নম্বর দিতেই পারছেন না পরীক্ষকরা। গোটা বিষয় ঘিরে তৈরি হয়েছে চরম বিভ্রান্তি।