দধীচি থেকে পদচ্যুত মহাশ্বেতা দেবী

মানবাধিকার সংগঠন দধীচির চেয়ারপার্সনের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল প্রবীণ সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবীকে। সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পটভূমিকায় প্রবীণ সাহিত্যিকের দ্বৈত ভূমিকার জন্যই এই সিদ্ধান্ত। জানানো হয়েছে দধীচি সংগঠনের তরফে।

Updated: Feb 10, 2013, 11:30 PM IST

মানবাধিকার সংগঠন দধীচি চেয়ারপার্সনের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল প্রবীণ সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবীকে। সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পটভূমিকায় প্রবীণ সাহিত্যিকের দ্বৈত ভূমিকার জন্যই এই সিদ্ধান্ত।  জানানো হয়েছে দধীচি সংগঠনের তরফে। পরিবর্তন চাই স্লোগান তুলে তৃণমূলের সমর্থনে পথে নেমেছিলেন। হাজির ছিলেন দু হাজার এগারোর একুশে জুলাইয়ের মঞ্চেও। কিন্তু, তারপর বিভিন্ন ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন মহাশ্বেতা দেবী। ফেব্রুয়ারির ৩ তারিখ বইমেলাতেও শোনা গেছিল অসন্তোষের সুর। শনিবার মাটি উত্সবে হঠাত সুর বদল। পানাগড়ে একমঞ্চে মমতা -মহাশ্বেতা দেবী। প্রবীন সাহিত্যিকের গলায় মুখ্যমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা। প্রবীণ সাহিত্যিকের আচমকা এই অবস্থান বদলেই ক্ষুদ্ধ মানবাধিকার সংগঠন দধীচি। দীর্ঘদিন ধরে সংগঠনটির চেয়ারপার্সনের দায়িত্বে ছিলেন মহাশ্বেতা দেবী। রবিবার প্রবীণ সাহিত্যিককে পদ থেকে সরানোর কথা জানিয়ে  দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল রায় ।