মমতার নির্দেশেও থামছে না দলীয় কাজিয়া

Last Updated: Friday, May 24, 2013 - 11:13

পঞ্চায়েত ভোটের আগে মিটিয়ে ফেলতে হবে সবরকম গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। কার্যত হুমকির সুরেই নির্দেশ দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। কিন্তু বাস্তবে ঘটছে ঠিক তার উল্টো। ব্লক সভাপতিকে অপসারণের প্রতিবাদে  বৃহস্পতিবার তৃণমূল ভবনে প্রকাশ্যে বিক্ষোভ দেখান দলের পশ্চিম মেদিনীপুরের কর্মী-সমর্থকেরা। প্রার্থীপদ নিয়ে দক্ষিণ ২৪ পরগনার দুই গোষ্ঠীর কাজিয়া মেটাতে ব্যর্থ দলের জেলার নেতারা। শেষ পর্যন্ত সমস্যা মেটাতে তৃণমূল নেত্রীর দ্বারস্থ হতে হচ্ছে দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে।   
আরও একবার পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রার্থী হোন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ কবিতা বেরা, তা মোটেই পছন্দ নয় তৃণমূলেরই বিধায়ক বঙ্কিম হাজরা এবং দুই ব্লক সভাপতির। এ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই জারি রয়েছে দু`পক্ষের কাজিয়া। সমস্যা মেটাতে এ দিন বৈঠক ডাকা হয় তৃণমূল ভবনে। ছিলেন সুব্রত বক্সি, তমোনাশ ঘোষ, শোভন চট্টোপাধ্যায়, সি এম জাটুয়াসহ জেলার অন্যান্য নেতারা। কিন্তু ম্যারাথন বৈঠকেও মেটেনি কাজিয়া। শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত হয় এনিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন তৃণমূল নেত্রী। বিষয়টি তবু মিটেছে বন্ধ ঘরে বৈঠকে।
কিন্তু পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলায় তৃণমূলের  ব্লক সভাপতিকে অপসারণের প্রতিবাদে এ দিন তৃণমূল ভবনে ক্ষোভ উগরে দিলেন শতাধিক দলীয় কর্মী। দলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখালেন তাঁরা। নেতৃত্বের বিরুদ্ধে স্বজনপোষনের  অভিযোগ এনেছেন পিংলার ব্লক সভাপতি গৌর ঘড়াই । কী কারনে তাঁকে সরিয়ে গৌতম জানাকে  ব্লক সভাপতি করা হল তা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। বিষয়টি  জানাতে গেলে মুকুল রায় তাঁদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ বিক্ষুব্ধদের। পঞ্চায়েত ভোট এগিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্য বিক্ষোভের চেহারা নেওয়ায় অস্বস্তিতে তৃণমূল নেতৃত্ব।



First Published: Friday, May 24, 2013 - 11:13


comments powered by Disqus
Live Streaming of Lalbaugcha Raja