দোলা সেনের ক্ষমতা খর্ব করলেন মমতা

Last Updated: Sunday, August 19, 2012 - 11:07

তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনে গোষ্ঠী কোন্দল ঠেকাতে এবার হস্তক্ষেপ করতে হল মুখ্যমন্ত্রীকে। ক্ষমতা খর্ব করা হল শ্রমিক সংগঠনের রাজ্য সভাপতি দোলা সেনের। যেসব কারখানায় একাধিক গোষ্ঠী রয়েছে, তা ভেঙে ফেলারও নির্দেশ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 
সরকারে আসার পর থেকেই তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনে গোষ্ঠী কোন্দল একেবারে প্রকাশ্যে। দলের শ্রমিক নেতা শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়কে সরিয়ে শ্রমিক সংগঠনের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে দোলা সেনের হাতে। কিন্তু দোলা সেনের বিরুদ্ধে ঘরে এবং বাইরে বিস্তর অভিযোগ। শ্রমমন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসুর ঘনিষ্ঠ দোলা সেনের নামে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগও জমা পড়েছে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে। এমনকী, কারখানায় তৃণমূল সংগঠন করার অনুমোদন দেওয়া নিয়েও বিস্তর অভিযোগ জমা পড়েছে। এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে তাঁকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত একপ্রকার নিয়েই ফেলেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু শেষমুহূর্তে মুকুল রায়ের অনুরোধেই তাঁকে সতর্ক করে দায়িত্ব থেকে সরানো হচ্ছে না। তবে, দোলা সেনের কাছ থেকে ইউনিয়নের অনুমোদন দেওয়া ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হয়েছে। শনিবার এবিষয়ে মহাকরণে বৈঠকে বসেছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মুকুল রায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, দোলা সেনরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ মতো সর্বভারতীয় শ্রমিক সংগঠন দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং প্রদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর। দোলা সেনের ক্ষমতা খর্ব করে অনুমোদন দেওয়ার ব্যাপারে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। যে সব কারখানায় তৃণমূলের একাধিক গোষ্ঠীর সংগঠন রয়েছে, তা অবিলম্বে ভেঙে দেওয়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তৃণমূলনেত্রীর কাছে অভিযোগ জমা পড়েছে, বহু কারখানাতেই শ্রমিক সংগঠনের নাম করে রীতিমতো তোলাবাজি চলছে। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, এই ধরনের অভিযোগ সামনে এলে দল কড়া ব্যবস্থা নেবে।



First Published: Sunday, August 19, 2012 - 11:07


comments powered by Disqus