চিট ফান্ড রুখতে মহকরণে জরুরী বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী

চিট ফান্ড রুখতে মহকরণে জরুরী বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী

চিট ফান্ড রুখতে মহকরণে জরুরী বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীচিট ফান্ড নিয়ে সমস্যার মোকাবিলায় ব্যবস্থা নিতে আজ মহাকরণে বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী। মহাকরণ সূত্রে খবর, রাজ্য সরকার চাইছে চিটফান্ডের সমস্যা নিয়ে দ্রুত একটি কমিশন গঠন করতে। এছাড়াও সরকার যাতে চিটফান্ডের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে পারে সেই অধিকার পাওয়ার জন্য একটি অর্ডিন্যান্স আনার কথাও ভাবা হচ্ছে। এই বিষয়গুলি নিয়েই মূলত আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে আজকের বৈঠকে। বৈঠকে থাকার কথা রয়েছে মুখ্যসচিব, অর্থসচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবের।

সরকারের কাছের সারদা গোষ্ঠীর প্রতারণার শিকার হয়েছেন বহু সাধারণ মানুষ। সর্বশান্ত হয়ে তাঁরা বিচার চাইছেন। দু`দিন আগে এজেন্টরা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখান। পুলিস তাঁদেরকে লাঠিচার্জ করে হঠিয়ে দেয়। গ্রেফতার করা হয় বেশকিছুকে। রাজ্য জুড়ে প্রতিবাদের ছবিটা একই। শাসকদলের নেতারা এই ঘটানায় দ্বায় এড়ানোর চেষ্ঠা করেছেন। এখন দেখার আজকের বৈঠকে রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতা ভুলে সাধারণ মানুষের দাবিকে প্রধান্য দিয়ে ঠিক কী পদক্ষেপ নেন মুখ্যমন্ত্রী।

নতুন কৌশল নিয়ে সারদার চিটফান্ডের এজেন্টদের সঙ্গে আজ বৈঠকে বসছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মুকুল রায়ও। দুপুর ১২ নাগাদ মোট একত্রিশ জন এজেন্টকে নিয়ে তৃণমূল ভবনে বৈঠকে বসবেন তিনি। এখনও পর্যন্ত সারদার চিটফান্ডে যে আমানতকারীরা টাকা রেখেছিলেন, তাঁদের আমানতের ভবিষ্যত কী বা চিটফান্ড গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তা নিয়ে কার্যত মুখে কুলুপ রাজ্য সরকারের। রাজনৈতিক মহলের ধারনা, যে পথে সুদীপ্ত সেনের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি, এবার সেই পথে এজেন্টদের বাঁচানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আমানতকারীরা যাতে সঙ্ঘবদ্ধ হতে না পারেন, আমানতকারীরা যাতে কোনও আন্দোলন তৈরি করতে না পারেন, সে কারণেই এজেন্টদের বাঁচিয়ে তাঁদের মাধ্যমে এই বিক্ষোভ আন্দোলনকে নিয়ন্ত্রণ করার কৌশল নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। 






First Published: Monday, April 22, 2013, 12:36


comments powered by Disqus