মোদীর অপেক্ষায় বসে ব্রিগেড, স্বাগত জানাতে পদ্মফুলে মুড়েছে শহর

'বাংলায় মমতা, দিল্লিতে আমি' জটের রাস্তা খুলে রেখে আক্রমণ থার্ড ফ্রন্টকে

'বাংলায় মমতা, দিল্লিতে আমি' জটের রাস্তা খুলে রেখে আক্রমণ থার্ড ফ্রন্টকে৪টে ০১: 'চিত্ত যেথা ভয় শূন্য'। রবীন্দ্রনাথ পরিষ্কার লক্ষ্য স্থির করে দিয়েছেন।

৪টে: প্রণব বাবুর আগেই প্রধানমন্ত্রী হওয়া উচিত ছিল। কংগ্রেস ইচ্ছা করে করেনি।

৩টে ৫০: এখানে মমতা উন্নয়ন করছে। আমি কেন্দ্রে আপনার জন্য কাজ করব। আর আমার ওপরে থাকবেন আপনাদেরই প্রণব মুখার্জি। ফলে আপনাদের তিনটি লাভ হওয়ার সুযোগ।

৩টে ৪৬: কেন বাংলায় কৃষিক্ষেত্রে বিকাশ হয়নি? আমার ইচ্ছা ভারতের এই অংশকে পিছিয়ে থাকতে দেব না। ভারতের পশ্চিম ভাগ যখন উন্নয়ন করছে, তখন পূর্ব ভারতে শুধুই অনুন্নয়ন। এর কারণ থার্ড ফ্রন্ট।

৩টে ৪৫: বাংলায় কয়লা খাদানের কাছে অবস্থিত হওয়া সত্ত্বেও বাংলা ২৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ পায় না। বাংলার গ্রামে শিক্ষা ব্যবস্থা ভেঙে পেড়েছে।

৩টে ৪০: সমস্ত সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও, পশ্চিমবঙ্গে ক্রমশ পিছিয়েই চলেছে। "আমাদের সোনার বাংলা আমার নিয়ে আসব।"




৩টে ৩৬: পশ্চিমবঙ্গ একবার বিজেপিকে মেনে নিক। ৬০ বছরের গর্ত ভর্তি করার কথা দিলাম আমি।

৩টে ৩১: বাংলার মানুষ পরিবর্তন চেয়েছিল। কিন্তু আসল পরিবর্তন কী এসেছে? প্রশ্ন মোদীর। এই নির্বাচনে বাংলা দেশকে দিশা দেখাবে বলে আশা মোদীর। লোকসাভা নির্বাচনে বাংলার সবকটি আসনে বিজেপিকে জেতানোর ডাক প্রধানমন্ত্রী প্রদপ্রার্থীর।

৩টে ৩০: ৬০ বছর ধরে শুধুই প্রতিশ্রুতি শুনিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি। এখন মানুষ চাইছে উন্নয়ন।

৩টে ২৮: দেশ গঠনে বাংলাকে বিশেষ ভাবে প্রয়োজন।

৩টে ২৬: আমি বিবেকানেন্দর ভারতকে 'বিশ্ব গুরু' বানানোর স্বপ্নকে সত্যি করার লক্ষ্যে কাজ করছি।

৩টে ২৫: গুজরাত গঠনে বাংলার যথেষ্ট ভূমিকা ছিল। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাই গুজরাতে শিল্প গঠনে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছিলেন।

৩টে 20: দেশের মানুষ সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছে। দিল্লিতে যারা থার্ড ফ্রন্ট গঠনের বৈঠক করছেন, তাদের বলছি একবার হেলিকপ্টার থেকে দেখুন মানুষ কী চাইছে।

৩টে ১৯: "বাঙলার ভাই বোন কে আমর ভালবাসা। আমার সোনার বাংলা আমি তোমাকে ভালবাসি।" ভাঙা বাংলায় বললেন নরেন্দ্র মোদী।

এক নজরে দেখে নেওয়া যায় এই সভার লাইভ ব্লক--।

৩টে ১৮: সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন নরেন্দ্র মোদী।

৩টে ১৫: গুজরাত দাঙ্গা 'দুর্ভাগ্যজনক'। কিন্তু ১২ বছরে মোদী সংখ্যালঘু সুম্প্রদায়ের সঙ্গে কোনও ভেদ করেনি। ভারতীয় জনতা পার্টি জাতী নির্ভর দল কখনই নয়। বললেন রাজনাথ।

৩টে ১০: নন্দী গ্রামে কৃষকদের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি রাজনাথ সিংয়ের।

৩টে ০৫: "পশ্চিমবঙ্গের অর্থ ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের জন্য কেন্দ্রর রাজ্যকে বেল আউট প্যাকেজ দেওয়া উচিৎ। নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হলে, দেশের কোনও অংশ উন্নয়ন বিমুখ থাকবে না।"

৩টে: রাজ্যে বাড়তে থাকা হিংসা, খুন, ধর্ষণের ঘটনায় সরকারের সমালোচনা রাজনাথ সিংয়ের।"কলকাতা কখনও আনন্দের শহর বলা হত।" মানুষ অনেক আশা নিয়ে রাজ্যে পরিবর্তন এনেছিল। কিন্তু মমতাজী, ঠিক মতো কাজ হচ্ছে না।

২টো ৫৫: সি পি আই এম ৩৫ বছরের শাসনে বাংলাকে নষ্ট করে দিয়েছে। বললেন রাজনাথ সিং।

২টো ৫৩: গঙ্গাসাগরের পারে আজ বহু মানুষের সমাবেশ। বললেন রাজনাথ সিং।

২টো ৪৫: যে পার্টির বাংলায় একটা সিট নেই, সেই দলের ব্রিগেড আজ। সমাবেশ ভণ্ড করার ষড়যন্ত্র সত্ত্বেও ব্রিগেড ভড়ে গিয়েছে। রাজ্যের বাড়তে থাকা ধর্ষণ নিয়ে সমালোচনা রাহুল সিনহার। মুখ্যমন্ত্রীর সমালোচনায় তিনি বলেন, "তোমারে বধিবে যে, গোকুলে বাড়িছে সে।"

২টো ৪১: নরেন্দ্র মোদীর নামে শ্লোগান সমর্থকদের। রয়েছেন বিজেপি সভাপতি রাজনাথ সিং, রয়েছেন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা। রয়েছেন বরুণ গান্ধী।

২টো ৪০: সমাবেশ স্থলে পৌঁছলেন নরেন্দ্র মোদী।

২টো ৩৫: ব্রিগেডের পথে মোদী। ২৫ টি গাড়ির কনভয় কিছুক্ষণে পৌঁছবে সমাবেশ স্থলে।

২টো ২৭: রেসকোর্সে নামাল মোদীর চপার। এরপর সড়ক পথে যাবেন সভাস্থালেন।

২টো ২৫: বিজেপির সরকার গঠনে বাংলার মাটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করবে। বললেন শাহানাওয়াজ হুসেন।

২টো ২০: ব্রিগেডের আকাশে দেখা গেল মোদীর হেলিকপ্টার।

২টো ১৭: "আমি বাঙালি। মানুষ চাইছেন আমি বিজেপির হয়ে কাজ করি।" সমাবেশে বললেন বাপ্পি লাহিড়ী। মোদীর বক্তব্যের শুরুতে সুরে উত্তেজনা বাড়ালেন বাপ্পি লাহিড়ী।

২টো: দমদম বিমানবন্দর থেকে চপারে রেসকোর্স পৌঁছবেন মোদী।

বেলা ১টা ৪০: দমদম বিমানবন্দরে পৌঁছলেন নরেন্দ্র মোদী। এরপর হেলিকপ্টারে পৌঁছবেন রেসকোর্সে।

সকাল ১১টা-- হুগলির গোঘাটে বিজেপি কর্মীদের মারধোরের অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। অভিযোগ মিছিলে আসার পথে বিজেপি সমর্থকদের উপর হামলা চালায় শাসক দল।

মোদী কপ্টারে নামবেন রেসকোর্সে।


সকাল ১০.৩০টা- সমাবাশের জেরে ব্যাপক যানজট। সমস্যায় নিত্যযাত্রীরা।

সকাল ১০টা-রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মিছিল আসতে শুরু করেছে।

সকাল ৯টা-৬টি ওয়াচ টাওয়ার থেকে চলছে নজরদারি। ৩০টি সিসিটিভি বসানো হয়েছে।

শহরে গুজরাট পুলিসের ৫০ জনের দল।

সকাল ৮.৩০টা- নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে শহর। ব্যবস্থা করা হয়েছে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা। থাকছে সিসিটিভি ক্যামেরা, আশেপাশের । ব্রিগেডের আকাশে চক্কর কাটবে উড়ুক্কু যান।

সকাল ৮টা-- ব্রিগেডে যোগ দেওয়ার জন্য শিয়ালদহ-হাওড়া স্টেশনের বাইরে ভিড়। ব্রিগেডে মিছিলের প্রস্তুতি শুরু

First Published: Wednesday, February 05, 2014, 19:46


comments powered by Disqus